দীর্ঘ সময় পর হদিস পাওয়া গেছে জনপ্রিয় মডেল-অভিনেত্রী সারিকার। চলতি বছরের ১৫ এপ্রিল ’হদিস নেই সারিকার’ শিরোনামে একটি খবরও প্রকাশ হয়। তবে নতুন খবর হলো, খোঁজ মিলেছে এ অভিনেত্রীর।
প্রায় ছয় মাস বিরতির পর অভিনয়ে ফিরেছেন এই অভিনেত্রী। আসছে ঈদের জন্য নির্মিত ’চুল তার কবেকার’ শিরোনামের একটি টেলিফিল্মে দেখা যাবে তাকে। এটি রচনা ও পরিচালনা করছেন তুহিন হোসেন। গত ১৭ মে এই টেলিফিল্মটির শুটিংয়ে অংশ নিয়েছেন সারিকা।

এ বিষয়ে সারিকা জানান, টেলিফিল্মটির গল্পটি খুবই মজার। এর আগেও এই নির্মাতার সঙ্গে আমার কাজ করা হয়েছে। যার কারণে তার প্রতি আমার আস্থা রয়েছে। এজন্যই কাজটি করা হয়েছে।



এর আগে একই নির্মতার আরো দুটি টেলিফিল্মে অভিনয় করেছেন সারিকা। এতে সারিকা জুটি বেঁধেছেন অভিনেতা মিশু সাব্বিরের সঙ্গে। টেলিফিল্মটিতে আরও অভিনয় করছেন লুৎফর রহমান জর্জ, শিল্পী সরকার অপুসহ আরও অনেকেই।

টেলিমিল্মের নির্মাতা জানিয়েছেন, ঈদের সপ্তমদিন রাত ৭টা ৪৫ মিনিটে টেলিফিল্মটি চ্যানেল আইতে প্রচার হবে।



অশিল্পীসুলভ আচরণের জন্য ২০১৮ সালের শেষের দিকে সারিকাকে ৬ মাসের জন্য নিষিদ্ধ করেছিল টেলিভিশন প্রোগ্রাম প্রডিউসারস্ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ। তারপর তিনি নিজের আচরণের জন্য ক্ষমাও চেয়েছিলেন। এরপরই সংগঠনটি সারিকার ওপরে থাকা নিষেধাজ্ঞা শিথিল করে। ফের অভিনয়েও ফিরেন। কিন্তু অভিনয়ে আর নিয়মিত হতে পারেননি।

সারিকার বিষয় তার ঘনিষ্ঠজনরা বলছিল, সারিকা তার ক্যারিয়ারে সুবর্ণ সময়ে গিয়ে তারকাখ্যাতি মেনটেইন করতে পারেননি। এ ছাড়া সময় মেনে কাজ না করা, বিয়ে করে ফেলা, হঠাৎ করে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন, তার ক্যারিয়ারের জন্য কাল হয়েছে। কিন্তু যখন সারিকা সচেতন হয়েছেন, তখন আর সারিকার পূর্বের জায়গায় ফিরে যেতে পারেননি।

প্রসঙ্গত, সারিকা মডেলিং শুরু করেন ২০০৬ সালে আর অভিনয় ২০১০ সাল থেকে। কিন্তু ২০১৩ সালের মাঝামাঝি হঠাৎ করেই নাটক ও মডেলিংয়ে অনিয়মিত হয়ে পড়েন।

২০১৪ সালে জানা যায়, ব্যবসায়ী মাহিম করিমের সঙ্গে তার বিয়ে হয়েছে। তাদের ঘরে এক কন্যা সন্তানের জন্মও হয়। কিন্তু সাংসারিক জীবনে বনিবনা না হওয়ার কারণে একটা সময় গিয়ে ভেঙে যায় সংসার।


সূত্র;বিডি মর্নিং