ছবি : সংগৃহীত
বিয়ের অনুষ্ঠানে চিংড়ি মাছ না পেয়ে উত্তেজিত বরের বিরুদ্ধে বিয়ে ভেঙ্গে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। ফলে খালি হাতে নিজ নিজ বাড়িতে ফিরে যান বর ও কনে পক্ষ। বৃহস্পতিবার (২৭ সেপ্টেম্বর) বিকেলে চট্টগ্রামের আনোয়ারায় উপজেলার বটতলী বাজারের আলভী ম্যারেজ গার্ডেনে এ ঘটনা ঘটেছে।
জানা যায়, বিবাহ অনুষ্ঠানে বরকে চিংড়ি মাছ না দেওয়ায় বর ক্ষিপ্ত হয়ে টেবিল উল্টে দেয়। এই সময় কনে পক্ষের লোক শান্ত হতে বললে বর আরও খারাপ আচরণ করে। এক পর্যায়ে দুই পক্ষে তূমুল কথা কাটাকাটি হয়, বর বিবাহ বিচ্ছেদ করে দেয়। বর ও তার আত্মীয়স্বজন পালিয়ে চলে যেতে চাইলে কনের পক্ষ তাদেরকে আটকিয়ে রাখে।
এই সময়- আনোয়ারা থানা পুলিশ এসে পরিস্থিতি স্বাভাবিকে আনে। দুই পক্ষকে নিয়ে পুলিশ সমঝোতায় আনতে চাইলে কনের বাবা বরকে মেয়ে তুলে দিতে আপত্তি জানায়। আর দুই পক্ষে মিলামিল হয়নি। পুলিশ তিন চারদিনের মধ্যে স্থানীয় চেয়ারম্যান ও মেম্বার নিয়ে দুই পক্ষকে সালিশি বৈঠকের মাধ্যমে মিমাংসা করতে বলেন।
এ বিষয়ে কনের বাবা বলেন, সামান্য চিংড়ি মাছের জন্য যে ছেলে বিয়ের আসরে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে পারে, সে ভবিষ্যতে আমার মেয়েকে অত্যাচার করবেনা গ্যারান্টি কি?
শুক্রবার কনের বাবার কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, গ্রামে সালিশি বৈঠকের মাধ্যমে একটা মিমাংশা আনতে চেষ্টা করছি।
আনোয়ারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) মাহমুব মিল্কী বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, তুচ্ছ বিষয় নিয়ে বরের একগুঁয়েমির কারণে বিয়েটি ভেঙে গেছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। পরে তা সামাজিকভাবে মিমাংসা করে সম্পর্কটা টিকিয়ে রাখতে স্থানীয় চেয়ারম্যানকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল। এরপর তারা আমাদের আর কিছু জানায়নি। এমনকি কোন পক্ষই থানায় অভিযোগ করেনি।
বিডি২৪লাইভ