কুড়িগ্রামের জেলা প্রশাসক সুলতানা পারভীনের বদলির আদেশ প্রত্যাহার করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন কুড়িগ্রাম জেলাবাসী। এ আনন্দের সংবাদে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে তারা একে অপরকে মিষ্টি খাইয়ে খুশিতে মেতে ওঠেন।
গত ২৭ সেপ্টেম্বর রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় বিসিএস প্রশাসন ক্যাডারের ৬১৩ জন কর্মকর্তাকে প্রজ্ঞাপন জারি করে বিভিন্ন জায়গায় বদলির আদেশ দেন।
এর মধ্যে কুড়িগ্রামের জেলা প্রশাসক মোছা. সুলতানা পারভীনকে উপসচিব হিসেবে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে বদলির আদেশ প্রদান করেন। রোববার সেই আদেশ বাতিল করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।
জেলা প্রশাসক সুলতানা পারভীনকে কুড়িগ্রামে স্বপদে বহাল রাখার খবরে মিষ্টি বিতরণ করেছে জেলার বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ। অল্পদিনেই কুড়িগ্রামে বিভিন্ন ইতিবাচক কর্মকাণ্ড পরিচালনার মধ্য দিয়ে তিনি সবার মন জয় করেন। হঠাৎ করে তার বদলির আদেশে প্রতিবাদে ফেটে পরে জেলার বিভিন্ন প্রান্তের মানুষ। আদেশ প্রত্যাহারের জন্য মানববন্ধন কর্মসূচি দেয়া হয় বিভিন্ন জায়গায়।
রোববার রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব দেওয়ান মাহবুবুর রহমান স্বাক্ষরিত নির্দেশটি হাতে পেলে স্বস্থি ফিরে আসে কুড়িগ্রামের মানুষের মধ্যে।
এ ব্যাপারে কুড়িগ্রামের সিনিয়র সিটিজেন এবং জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি একেএম সামিউল হক নান্টু বলেন, অভিনন্দন জেলা প্রশাসক মহোদয়কে তাকে স্বপদে বহাল রাখার জন্য। কুড়িগ্রামের উন্নয়নে তিনি অবশ্যই তার স্বপ্নকুঁড়ি’র মধ্যদিয়ে কুড়িগ্রামকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাবেন।