রাজধানীর উত্তরা থানার উত্তরখানে ভিমরুল আতঙ্কে নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছে এক পরিবার। ভিমরুলের কামড়ে পরিবারের এক সদস্য অসুস্থ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।
জানা গেছে, উত্তরখান থানা সংলগ্ন ২৭০/১, আহিনি ভিলার সন্নিকটে আম গাছের ডালে ভিমরুল বাসা বাঁধে। ধীরে ধীরে আম গাছের ডালজুড়ে ভিমরুল তৈরি করে দুর্ভেদ্য আস্তানা। এতে পরিবারের দুই শিশুকে নিয়ে বিপাকে পড়েছেন বাড়ির মালিক মুশফিকুর রহমান ভূইয়া।
ভিমরুলের এ ভয়ঙ্কর আস্তানা নষ্ট করতে জরুরি সেবার জাতীয় হেল্প ডেস্ক ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে সহযোগিতা চান। কিন্তু জাতীয় হেল্প ডেস্ক অসহায় পরিবারটিকে হতাশ করেছে। ফলে এখন পরিবারের সদস্যরা নিয়ে নির্ঘুম রাত কাটছে ভিমরুল আতঙ্কে।
বাড়ির মালিক মুশফিকুর রহমান ভূইয়া জানান, ’শুক্রবার (২ নভেম্বর) বিকালে হঠাৎ করে আমার ’মা’ কে ভিমরুল কামড় দেয়। এতে ’মা’ অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে ভিমরুলের বাসা খুঁজে পাই। কিন্তু অধিকাংশ স্থানে তাদের অবস্থান থাকায় স্থানীয়ভাবে সরানো যাচ্ছে না। জরুরি সেবার জাতীয় হেল্প ডেস্ক ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে সহযোগিতা চেয়েও সাড়া পাওয়া যায়নি।’
এ ব্যাপারে জরুরি সেবার জাতীয় হেল্প ডেস্ক ’৯৯৯’ নম্বরে ফোন করে বিষয়টি সমাধানের কথা জানানো হলে তারা জানান, এ ধরনের সেবা আমরা প্রদান করি না। তাছাড়া এ বিষয়ে আমাদের কোন প্রশিক্ষণ নেই বলেই এড়িয়ে যান। তবে স্থানীয়ভাবে রাতের বেলা আগুন জ্বালিয়ে তাড়ানোর পরামর্শ দেন তারা।
বিনা খরচে ’৯৯৯’ নম্বরে ফোন করে নাগরিকেরা পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও অ্যাম্বুলেন্সের সেবাসহ কোনো অপরাধ ঘটতে দেখলে, প্রাণনাশের আশঙ্কা দেখা দিলে, কোনো হতাহতের ঘটনা চোখে পড়লে, দুর্ঘটনায় পড়লে, অগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটলে ওই নম্বরে ফোন করে সাহায্য পাওয়ার কথা থাকলেও উক্ত বিষয়টিতে সহযোগীতা না পাওয়ায় দুঃখ প্রকাশ করেন স্থানীয়রা।