রাজধানীর ফার্মগেট এলাকায় অভিযান চালাচ্ছিলেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল মামুন। অভিযানের সংবাদ পেয়ে অনেকেই রেস্টুরেন্ট বন্ধ করে গা ঢাকা দেন।
রোববার (১২ মে) দুপুরে ইন্দ্রিরা রোডে অভিযান পরিচালনাকালে ’প্রিন্স রেস্তোরাঁ’ নামের একটি রেস্টুরেন্টের শাটার বন্ধ পান ভ্রাম্যমাণ আদালতের সদস্যরা। শাটার বাইরে থেকে বন্ধ দেখে সন্দেহ হয় তাদের।
ম্যাজিস্ট্রেট শাটারের ফাঁক দিয়ে ভেতরে দেখার চেষ্টা করেন। ভেতরে তো অনেক কাস্টমার। রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষকে শাটার খোলার অনুরোধ করেন। কিন্তু কে শোনে কার কথা?
ভেতর থেকে কোনো সাড়া না পেয়ে তালা ভাঙার নির্দেশ দেন ম্যাজিস্ট্রেট। ভাঙা হলো তালা। ভেতরে মিললো অন্তুত ৫০ জন কাস্টমার। তাদের ভেতরে রেখেই বাইরে দিয়ে তালা লাগিয়ে দেয়া হয়।
ভেতর থেকে বেরিয়ে এক ক্রেতা বলেন, হঠাৎ করেই হোটেলের কর্মীরা শাটার নামিয়ে দিল। কারণ জিজ্ঞাসা করলে তারা জানায়, বাইরে মারামারি হচ্ছে। এ কারণে আমরা ভয়ে চুপ ছিলাম।
রোববার দুপুরে ডিএমপির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল মামুনের নেতৃত্বে অভিযানে আরও উপস্থিত ছিলেন গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি) ও ডিএমপির ক্রাইম বিভাগের সদস্যরা।


bangladeshtoday