বিএনপি চেয়ারপারসনের বিশেষ সহকারী সদ্য কারামুক্ত অ্যাডভোকেট শামছুর রহমান শিমুল বিশ্বাস বলেছেন, পাবনা থেকে খালেদা জিয়ার মুক্তির কাফেলা শুরু হলো। খুব শিগগির তিনি মুক্ত হয়ে দেশের জনগণের মধ্যে ফিরে আসবেন।
খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে মঙ্গলবার দুপুরে পাবনার কাজিরহাট থেকে পাবনা শহর পর্যন্ত এক বিশাল মোটরবহরে মুক্তির কাফেলা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে কাশীনাথপুর, বনগ্রাম, আহমেদপুর, নাটিয়াবাড়ী, মাধপুর, আতাইকুলাসহ বিভিন্ন স্থানে অনুষ্ঠিত হয় পথসভা।
দীর্ঘ ১৫ মাস কারা ভোগের পর জামিনে মুক্ত হয়ে নিজ জেলা পাবনাতে আসার পথে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় কাজিরহাট ঘাটে দলের হাজার হাজার নেতাকর্মী শিমুল বিশ্বাসকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও স্বাগত জানান।
পথসভায় শিমুল বিশ্বাস বলেন, দেশের মানুষ আজ ভালো নেই। সবার কণ্ঠ রোধ করে জোর করে সরকার ক্ষমতায় টিকে আছে। মানুষ এই দুঃশাসন থেকে মুক্তি চায়। কারাগারগুলোতে বিএনপিসহ বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের ভরে ফেলা হচ্ছে। মানুষের ভোটাধিকার নিশ্চিত করাসহ গণতন্ত্র পুনঃউদ্ধারের এই সংগ্রামকে বেগবান করুন। ফ্যাসিবাদের দোসর জালিম এই সরকারের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলুন। একজন সফল রাষ্ট্রপতির স্ত্রী ও দেশের একাধিকবারের প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ওপর সরকার যে অমানবিক আচরণ ও নিষ্ঠুরতা করেছে, তা এদেশের রাজনৈতিক ইতিহাসে কলংকিত অধ্যায় হয়ে থাকবে। তবে সরকারকে জানান দিতে চাই, আগামী দিনে খালেদা জিয়ার নেতৃত্বেই সরকারের পতন ঘটিয়ে মানুষের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠা করা হবে।
কাজিরহাট ঘাট থেকে মুক্তির কাফেলাটি পাবনা পৌছে বেলা ৩টায়। এরপরে শহরের দলীয় কার্যালয় চত্বরেও এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
এ সব কর্মসূচিতে সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট একেএম সেলিম রেজা হাবিব, সাবেক এমপি কে এম আনোয়ারুল ইসলাম, জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুস সামাদ খান মন্টু, সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী খন্দকার হাবিবুর রহমান তোতা, দলের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য জহুরুল ইসলাম বাবুসহ বিএনপি, যুবদল ছাত্রদল, স্বেচ্চাসেবক দলের নেতাকর্মীরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র:এনটিভি বিডি