স্বামীর সম্পদ নিয়ে পরকীয়া প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়ে যাওয়া এক প্রবাসীর স্ত্রীকে আটক করেছে পুলিশ। বুধবার (২২ মে) সকালে সিলেট থেকে পরকীয়া প্রেমিক ও লুণ্ঠিত সম্পদসহ দুই সন্তানের জননী ইয়াসমিন আক্তার পলিকে (৩৪) আটক করে নিয়ে আসে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ। দুপুরে তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে হাজতে পাঠানো হয়।
নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে এ ঘটনা ঘটেছে।
সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক জয়নাল আবেদীন বলেন, মঙ্গলবার দুপুরে সিলেটের শাহপরাণ থানাধীন মেজর টিলার কে.কে. গার্ডেন থেকে আসামিদের গ্রেফতার ও চুরিকৃত মালামাল জব্দ করে থানায় আনা হয়েছে। বুধবার দুপুরে তাদেরকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।
গ্রেফতারকৃত আসামি সালেহ আহমেদ পলাশ সিলেটের জালালাবাদ থানাধীন আখালিয়া জৈগিপাড়া গ্রামের মুক্তার আহমেদের ছেলে। ইয়াসমিন আক্তার পলি প্রবাসী মো. আলী হোসেনের স্ত্রী এবং লক্ষ্মীপুরের রায়পুর থানাধীন মধুপুরের আবু ইউসুফের মে। বর্তমানে তাদের সংসারে ১৩ ও ৮ বছরের দুটি ছেলে সন্তান রয়েছে।
প্রবাসী আলী হোসেন জানান, ২৫ বছর ধরে তিনি সৌদি আরবে ব্যবসা করছেন। ১৬-১৭ বছর আগে তিনি বিয়ে করেছিলেন। তাদের সংসার ভালোভাবেই চলছিল। তাদের ১৩ ও ৮ বছরের দুই সন্তানও রয়েছে। কিন্তু তিনি বিদেশে থাকায় তার অনুপস্থিতিতে ফেসবুকে সিলেটের সালেহ আহমেদ পলাশের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সেই পরিপ্রেক্ষিতে গত ৩০ এপ্রিল দুপুরে দুজনে যোগসাজশে ৫ লাখ টাকা মূল্যের ১১ ভরি স্বর্ণালঙ্কার, নিত্য ব্যবহার্য ইলেকট্রিক পণ্য, আসবাবপত্রসহ ৮ লাখ টাকার মালামাল ও নগদ ৭ লাখ টাকা নিয়ে চলে যায়। খবর পেয়ে প্রবাসী মো. আলী হোসেন দেশে ফিরে ১৭ মে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
বিডি২৪লাইভ