বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বন্দিত্বে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)।

বাংলাদেশ সফররত ইইউর মানবাধিকার বিষয়ক বিশেষ দূত এমন গিলমোর সোমবার আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের কাছে এই উদ্বেগের কথা জানান।

বৈঠকে রোহিঙ্গা সঙ্কট, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন, বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ড এবং গত নির্বাচনে মানবাধিকার লঙ্ঘনের নানা বিষয় নিয়ে কথা বলেন ইইউ দূত।

গিলমোর বলেন, "আমাদের উদ্বেগ বাংলাদেশের সার্বিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে। তিনি (খালেদা) একজন বয়ঃবৃদ্ধ নারী, তার শারীরিক অবস্থাও ভালো নয়, এক্ষেত্রে মানবিকতার একটি বিষয় আছে।"

দুর্নীতির মামলায় গত বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে কারাগারে রয়েছেন ৭৪ বছর বয়সী খালেদা জিয়া। সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী এখন চিকিৎসার জন্য বিএসএমএমইউ হাসপাতালে রয়েছেন।

বিএনপি তাদের নেত্রীর মুক্তির দাবি জানিয়ে এলেও মন্ত্রীদের ভাষ্য, এটা পুরোপুরি আদালতের বিষয়, এখানে সরকারের কিছু করার নেই।

খালেদা জিয়ার বন্দিত্বের ক্ষেত্রে আদালতের পদক্ষেপ ঠিক না ভুল বলে মনে করেন- সাংবাদিকদের সেই প্রশ্নে সরাসরি এড়িয়ে যান ইইউ দূত।

তিনি বলেন, "আমরা যখন দেখি কোনো দেশের প্রধান বিরোধী দলের নেতা কারাগারে, তখন তা প্রশ্নের উদ্রেক ঘটায়। সেখানে কী হচ্ছে, কেন হচ্ছে?"

বাংলাদেশে গত ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত একাদশ সংসদ নির্বাচনের গ্রহণযোগ্যতা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছিল ইইউ।

আইনমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে সে বিষয়টিও তুলেছেন জানিয়ে গিলমোর বলেন, ইউরোপের বিশেষজ্ঞরা যে সুপারিশগুলো করেছিল, তার জবাব শিগগিরই দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন আইনমন্ত্রী।