সম্প্রতি দেশের স্যোশাল মিডিয়া এবং ইউটিউবে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে বেশ। যে ভিডিওতে দেখা যায় পুলিশের এক কর্মকর্তার ট’/র্চা’/র।জিনসের প্যান্ট ও কোট পরা এক ব্যক্তির হাতে হাতকড়া। দুই চোখ গামছা দিয়ে বাঁধা। তাঁর সামনের চেয়ারে এক ব্যক্তি। তিনি বলছেন, ’তোর কী হইছে। কে মা’/র’/ছে। আমি তো তোগে লোক না। তোগে লোক হলে থানায় থাকতে পারতাম। আমি নিক্সন চৌধুরীর লোক।’


ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিও চিত্রে এমন কথা বলে নিজের পরিচয় দেওয়া ব্যক্তি হলেন পরিদর্শক আহাদুজ্জামান। তিনি ফরিদপুরের সদরপুর উপজেলার চন্দ্রপাড়া ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা। এর আগে তিনি জেলা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ছিলেন।

ভিডিওতে হাতকড়া পরা ব্যক্তি হলেন ভাঙ্গা উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ আরাফাত। গত সোমবার তিনি নিজের ফেসবুক আইডিতে ভিডিওটি আপলোড করেন। এ ঘটনা তদন্তে মঙ্গলবার তিন সদস্যের কমিটি গঠন করেছেন পুলিশ সুপার (এসপি) মো. আলিমুজ্জামান।

ভাঙ্গা, সদরপুর ও চরভদ্রাসন উপজেলা নিয়ে গঠিত ফরিদপুর-৪ আসনের বর্তমান সাংসদ মুজিবর রহমান চৌধুরী ওরফে নিক্সন। গত ২০১৪ ও ২০১৮ তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কাজী জাফর উল্যাকে পরাজিত করেন।
শেখ আরাফাত বলেন, গত ৫ জানুয়ারি সন্ধ্যায় কাউলিবেড়া এলাকা থেকে তাঁকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে। হা’/ত’/ক’/ড়া পরিয়ে গাড়ির মধ্যে চারজন পুলিশ সদস্য তাঁকে মা’/র’/ধ’/র করেন। পুখরিয়া এলাকায় তাঁকে ডিবি পুলিশের গাড়িতে তুলে দেওয়া হয়। তখন তাঁর চোখ বেঁধে ফেলা হয়। নানাভাবে ভয় দেখানো হয়। বলা হয়, ’তোকে ক্র’/স’/ফা’/য়া’/রে দেব। সকালের সূর্য তুই দেখতে পারবি না। আজই তোর শেষ রাত।’

আরাফাত আরও বলেন, রাতে তাঁকে এসপির কার্যালয়ের তিনতলায় ডিবির কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাঁকে চেয়ারে পিঠমোড়া করে বাঁধা হয়। এরপর তাঁর দুই পা’/য়ে ’বে’/তে’/র’/ লা’/ঠি দিয়ে অন্তত ৩০ মিনিট পে’/টা’/নো হয়। এরপর ১০ মিনিট বিরতি দিয়ে আবার পে’/টা’/নো’/ হয়। ডিবির তৎকালীন ওসি আহাদুজ্জামান আসেন। সেই ঘটনার ভিডিও তিনি আপলোড করেছেন।
১ মিনিট ১৬ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে দেখা যায়, আহাদুজ্জামান বলছেন, ’…আমি তো তোগে লোক না। তোগে লোক হলে (ভাঙ্গায়) থানায় থাকতে পারতাম।’

এর আগে আরাফাত আমাকে বলেছিলেন, আমি নাকি নিক্সন চৌধুরীর লোক। এর উত্তরে আমি বলেছি, নিক্সন চৌধুরীর লোক হলে আমি থানাতেই থাকতে পারতাম।

আহাদুজ্জামান ২০১৯ সালের ১৭ নভেম্বর থেকে ২০২০ সালের ১২ মার্চ পর্যন্ত ডিবির ওসি হিসেবে কর্মরত ছিলেন। পরে তাঁকে সদরপুরের চন্দ্রপাড়া ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হিসেবে বদলি করা হয়। বর্তমানে তিনি সেখানেই আছেন।

জানতে চাইলে পরিদর্শক আহাদুজ্জামান বলেন, ’আমি আরাফাতকে চোখ বাঁধা অবস্থায় পেয়েছি। তাঁকে মা’/র’/ধ’/র করা হয়েছে কি না, জানি না। এর আগে আরাফাত আমাকে বলেছিলেন, আমি নাকি নিক্সন চৌধুরীর লোক। এর উত্তরে আমি বলেছি, নিক্সন চৌধুরীর লোক হলে আমি থানাতেই থাকতে পারতাম।’

নিক্সন চৌধুরী বাংলাদেশের সাংসদদের মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় একজন সাংসদ। গত ২০১৪ ও ২০১৮ তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কাজী জাফর উল্যাকে পরাজিত করেন। একজন স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে টানা দুই বার এমপি হওয়াই প্রমান করে নিজ এলাকায় তিনি কতটা জনপ্রিয় একজন মানুষ।

আরো পড়ুন

এক রাজ ভিখারির খবর পেলাম,৫০ হাজার টাকার ভাড়া বাড়িতে থাকে আবার ভিক্ষাও করে

18 October, 2020 | Hits:8010

সমাজে মানুষের অনেক মুখোস থাকে। যার মধ্যে বেশির ভাগ মানুষই নিজের আসল চেহারাটা ঢেকে সমাজে ভালো মানুষের মুখোস পড়ে করতে চায় ...

অবশেষে খোজ পাওয়া গেল দেশ কাপানো সেই গায়ক মামুনের,জানাগেল কেমন কাটছে তার দিনকাল

19 October, 2020 | Hits:1390

বাংলাদেশ ধানের দেশ, বাংলাদেশ গানের দেশ। আর এই গানের দেশে গানকে সমৃদ্ধ করতে এসেছে হাজারো শিল্পী আবার চলেও গেছে। কিন্তু অন...

ও মেয়ে লাগাও, আর লাথিটা জায়গা মতো দিতে পারলেই তাহলেই কেল্লা ফতে:শামীম আজাদ

19 October, 2020 | Hits:1313

বাংলাদেশে সম্প্রতি সময়ে নারী ঘটিত ঘটনা বেড়ে গেছে বহু গুনে। আর এই কারনে দেশে এখন এ নিয়ে চলছে উত্তাল কান্ড কারখানা। বিশেষ ...

এবার প্রকাশ্যে,২০২০ সালে বাংলাদেশের এই উত্থান কেন মেনে নিতে পারছে না ভারত

18 October, 2020 | Hits:1168

বাংলাদেশের জন্য একটি সুখবর প্রকাশিত হয়েছে সম্প্রতি। আর তা হলো দেশের গড় মাথা পিছু আয় বাড়ছে। আর এটি শুধু বাড়া নয় একেবারে র...

এবার প্রকাশ্যে, কিভাবে এসআই আকবরকে সুযোগ করে দেয়া হয়েছে পালানোর

18 October, 2020 | Hits:1112

সিলেটের বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ির এসআই আকবর। সিনেমার নায়কের মত চেহারা দেখতে হলেও তিনিই এখন হয়ে গেছেন দেশের সব থেকে বড় ভিলে...

বিয়ে বাড়ি মুহূর্তের মধ্যেই হয়ে গেল কুলখানি, নিভে গেল সব আলো

18 October, 2020 | Hits:999

চারিদিকে একটা সাজ সাজ রব। সকলেই সময় কাটাচ্ছে বেশ আনন্দ ঘন মুহুর্তের মধ্যে দিয়ে। জোড় কদমে চলছে সেখানকার রান্নাবারার কাজও।...