অবশেষে রায় ঘোষণা করা হয়েছে দেশের আলোচিত সেই ঢাবি ছাত্রীর ঘটনার। এ ঘটনায় একমাত্র আসামী মজনুকে আজ দেয়া হয়েছে যাবজ্জীবন। আর এই কারনে নতুন করে আবারো এই ঘটনা নিয়ে সারা দেশে নতুন করে শুরু হয়েছে সমালোচনা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ছাত্রী ’/ধ’/র্ষ’/ণ’/ মামলার একমাত্র আসামি মজনুকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। এ ছাড়া ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো ছয় মাসের কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া এ মামলায় রায়ে মোবাইল ’/ছি’ন/’তা/’ই/ ’ও ’/চু’/রি’র/’ /দায় থেকে তাঁকে খালাস দেওয়া হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে ঢাকার সপ্তম নারী ও শিশু ’/নি’/র্যা’/ত’/ন’/ দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোছা. কামরুন্নাহার আলোচিত এ মামলার রায় ঘোষণা করেন।
এর আগে আজ দুপুর আড়াইটার দিকে মজনুকে আদালতে হাজির করা হয়। এ সময় আদালত চত্বরে মজনু অস্বাভাবিক আচরণ করেন এবং পরে কাঠগড়ায় পুলিশকে ’/মা’/র’/ধ’/র’/ করেন বলে জানিয়েছে প্রত্যক্ষদর্শীরা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, কাঠগড়ায় তোলার পর পরই মজনু সেখানে দায়িত্বরত উপপরিদর্শক (এসআই) ’/নৃ’/পে’/নে’/র’/ ওপর ’/হা’/ম’/লা’/ চালায়। মজনু এসআইয়ের ’/গ’/লা’/ চে’/পে’/ ধ’/রে’/ ’/কি’/ল-’ঘু’/ষি/ মা’/রে’/ন’/। তখন অন্য পুলিশ সদস্যরা এসে এসআই ’/নৃ’/পে’/ন’/কে সরিয়ে নেন। এ ছাড়া মজনু সেখানে দায়িত্বরত অন্য পুলিশ সদস্যদের গা’/’লা/গা’/ল’/ করেন। তখন আদালত কক্ষের মধ্যে একটি বিশৃঙ্খল পরিবেশ তৈরি হয়।

মজনু পুলিশ, রাষ্ট্রপক্ষের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) ও আইনজীবীদের অকথ্য ভাষায় ’/গা’/লা’/গা’/ল’/ করেন। এরপর আদালতের বিচারক নিরাপত্তার জন্য রুদ্ধদ্বার কক্ষে রায় ঘোষণার সিদ্ধান্ত নেন। তখন আইনজীবী ও সাংবাদিকদের আদালত কক্ষ থেকে বাইরে বের করে রায় ঘোষণা করেন বিচারক।


রায় শেষে মজনুকে কড়া নিরাপত্তায় পুরাতন জেলা জজ ভবনের ষষ্ঠ তলায় অবস্থিত ঢাকার সপ্তম নারী ও শিশু ’/নি’/র্যা’/ত’/ন’/ দমন ট্রাইব্যুনাল থেকে ’/গা’/র’/দ’/খা’/না’/য় নেওয়ার চেষ্টা করে পুলিশ। এ সময় মজনু আবার এসআই ’/নৃ’/পে’/নে’/র’/ হাতে ’/কা’/ম’/ড় দেন। তখন পুলিশ সদস্যরা মজনুর মুখ চেপে ধরেন বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শী সাংবাদিক মোহাম্মদ ইব্রাহিম। ’/কা’/ম’/ড়ে’/র’/ ফলে এসআই ’/নৃ’/পে’/নে’/র হাতে সামান্য ’/জ’/খ’/ম হয়। তাঁর হাতে ’/কা’/ম’/ড়ে’/র’/ চিহ্ন আছে।

ইব্রাহিম বলেন, "মজনু বলেছেন, ’আমি ’/ধ’/র্ষ’/ণ’/ করিনি। মিলন, দুলাল, ইয়াছিন ও আলামিন-এই চারজন ’/ধ’/র্ষ’/ণ’/ করেছে। তাদেরকে ধরেন। আমারে ছাইড়া দেন। আমি ’ম’/ই’/রা’/ যামু, আমারে ছাইড়া দেন।’ এরপর মজনুকে গারদখানায় ঢোকায় পুলিশ।

তবে এসআই নৃপেন সাংবাদিকদের কাছে দাবি করেন, মজনু তাঁকে ’/কা’/ম’/ড়’/ দেননি। তিনি ’/কা’/ম’/ড়’/ দিয়ে হাতকড়া ’/ভা’/ঙ’/তে’/ চেয়েছিলেন।

ঢাবি ছাত্রী ’/ধ’/র্ষ’/ণ’/ মামলায় ২৪ সাক্ষীর মধ্যে ২০ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করেছেন আদালত। মাত্র ১৩ কার্যদিবসে মামলাটির বিচার কার্যক্রম শেষ হয়েছে।

এর আগে গত ১৬ মার্চ মজনুকে একমাত্র আসামি করে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের পরিদর্শক আবু সিদ্দিক।

সে অভিযোগপত্রে তদন্ত কর্মকর্তা উল্লেখ করেন, গত ৪ জানুয়ারি ওই ছাত্রী বান্ধবীর দাওয়াতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্ষণিকা বাসে করে তাঁর বান্ধবীর বাসা শেওড়ার উদ্দেশে রওনা হন। সেদিন সন্ধ্যা ৭টায় ছাত্রী শেওড়া বাসস্ট্যান্ডে না নেমে কুর্মিটোলা বাসস্ট্যান্ডে নেমে যান। সে সময় ছাত্রী বুঝতে পারেন, তিনি ভুল করে নেমে পড়েছেন। ভুল বুঝতে পেরে তিনি ফুটপাত দিয়ে হাঁটতে থাকেন।

অভিযোগপত্রে বলা হয়েছে, মজনু ভবঘুরে প্রকৃতির লোক। ঢাকা শহরে তাঁর কোনো স্থায়ী বাসা নেই। ঘটনার দিন মজনু বিকেল ৫টায় কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে যান। ওষুধ নিয়ে সন্ধ্যা হয়ে যাওয়ায় কুর্মিটোলা বাসস্ট্যান্ড থেকে একটু পূর্বদিকে যাওয়ার রাস্তার ফুটপাতের পাশে ইটের তৈরি বেঞ্চে বসে থাকেন। সন্ধ্যা ৭টায় ছাত্রী ওই ফুটপাত দিয়ে যাচ্ছিলেন। মজনু পেছন দিক থেকে হঠাৎ তাঁকে পাশের ঝোপের ভেতরে ফেলে দেন। তখন ছাত্রী চিৎকার করতে থাকলে মজনু ’/গ’/লা’/ চে’/পে’/ ধরেন এবং মুখে, বুকে ও পেটে কি’/ল ঘু’/ষি’/ মা’/রে’/ন’/।

অভিযোগপত্রে আরো বলা হয়েছে, আসামি মজনু ছাত্রীর গ’/লা’/ চে’/পে/’ ধরায় তিনি নিস্তেজ হয়ে যান। একপর্যায়ে তিনি জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। তখন মজনু তাঁকে ’/ধ’/র্ষ’/ণ’/ করেন। ’/ধ’/র্ষ’/ণে’/র’/ পরে মজনু ছাত্রীর ব্যাগ থেকে একটি প্যান্ট বের করে তাঁকে পরিয়ে দেন। ছাত্রী জ্ঞান ফেরার পরে দেখেন তাঁর পরনে যে প্যান্ট ছিল সেটা আর নেই। ছাত্রী তখন চলে যাওয়ার চেষ্টা করলে মজনু টাকা, মোবাইল ফোন ও ব্যাগ ছিনতাইয়ের জন্য গলা চেপে ধরেন এবং ’/কি’/ল’/-ঘু’/ষি’/ মা’/রে’/ন’/। একপর্যায়ে মজনু ছাত্রীর কাছ থেকে দুই হাজার টাকা, মোবাইল ফোন ও ব্যাগ ছিনিয়ে নেন। এরপর ছাত্রী দৌড়ে রাস্তা পার হয়ে একটি রিকশায় ওঠেন এবং তাঁর বান্ধবীর বাসায় যান। বান্ধবীকে বিষয়টি জানালে ছাত্রীকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করা হয়।

অভিযোগপত্রে বলা হয়, এরপর ’/ধ’/র্ষ’/ণে’/র’/ শিকার ছাত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ। নারী ও শিশু ’/নি’/র্যা’/ত’/ন’/ দমন আইনের ২২ ধারায় আদালতে জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়। ঘটনাস্থলে পাওয়া আলামত, ছাত্রীর পরা প্যান্ট, ছাত্রী ও আসামির নমুনা সংগ্রহ করে ডিএনএ পরীক্ষার জন্য পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) চিফ ডিএনএ অ্যানালিস্টের কাছে পাঠানো হয়। পর্যালোচনায় দেখা যায়, মজনু ও ছাত্রীর ডিএনএ উপস্থিত আছে। যাতে প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হয় যে আসামি মজনু ছা’/ত্রী’কে ’ধ/’র্ষ’/ণ’/ করেছেন।

এ দিকে এই রায়ে অনেকেই সন্তুষ্ট হয়েছেন। আর সেই সাথে আবার অনেকেই বিষয়টি নিয়ে প্রকাশ করেছেন বেশ বিষ্ময়। বিশেষ করে অনেকেই মানতে পারছেন না মজনুর মত মানুষ করতে পারে এমন ঘটনা। এ ছাড়াও জানা গেছে এই রায়ে বেশ অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন তার আইনজীবিও। চলতি বছরের জানুয়ারী মাসের ৫ তারিখে ঘটে এই ঘটনা। এর পর শেওড়া বাসষ্টান্ড থেকে গ্রেফতার করা হয় তাকে। এর পর থেকেই শুরু হয় তার নামে এই বিচার কার্য।

আরো পড়ুন

মেয়ের গোপন ভিডিও রেকর্ড করতেন মা, ভিডিও প্রতি টাকা দিতেন জামাই

23 November, 2020 | Hits:2303

প্রতিটি মানুষের জীবনে এমন এমন কিছু ঘটনা ঘটে থাকে যা মানুষকে করে তোলে অবাক। বর্তমান পৃথিবীতে সম্পর্কগুলোও কেমন যেন হয়ে যা...

অবশেষে জানা গেল কেন মৃত তরুণীদের ভোগের বস্তু বানাতেন সেই মুন্না

23 November, 2020 | Hits:1233

সারা দেশে একটি ঘটনা বেশ আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। আর এই ঘটনাটি প্রকাশ হবার পর থেকেই মানুষে মধ্য সৃষ্টি হয়েছে একটি আতঙ্ক। না...

যেদিন শুনলাম সাকিব পূজা উদ্বোধন করতে যাবে, আনন্দে বুকটা ভরে উঠেছিল:বিচারপতি মানিক

23 November, 2020 | Hits:967

সাকিব আল হাসান, বাংলাদেশের সব থেকে জনপ্রিয় একটি নাম। দেশের সব থেকে বড় ক্রিকেটার তিনি। সব সময়ই থাকেন দেশের আলোচনায়। তবে স...

সেদিন বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে করা সেই প্রশ্নের জবাব দেননি জিয়া,অস্থিরভাবে হাতঘড়ির দিকে তাকাচ্ছিলেন:খুশবন্ত

22 November, 2020 | Hits:495

বাংলাদেশের ইতিহাসে দুটি নাম সব থেকে বেশি জনপ্রিয়। একটি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান এবং অপরজন মেজর জিয়া বা জিয়াউর রহমান। দ...

অবশেষে গোল্ডেন মনিরের সঙ্গে প্রতিমন্ত্রীর সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুললেন ওবায়দুল কাদের

24 November, 2020 | Hits:283

সম্প্রতি বাংলাদেশের টক অব দ্য টাউনে পরিনীত হয়েছে একটি নাম। আর তা হলো গোল্ডেন মনির। এই নামটি এখন সারা দেশে উচ্চারিত একটি ...

নারী কাউন্সিলর এক চামেলীর দাপটেই অসহায় পুরো রেল কর্তৃপক্ষ

22 November, 2020 | Hits:235

বাংলাদেশ রেলওয়ে, বাংলাদেশের সরকারি খাতের সব থেকে অলাভজনক প্রতিষ্ঠান। প্রতিবছরই এই রেলখাতে ঘাটতি থাকে ব্যাপক পরিমানে। এ দ...