আমি খালি ভাবছি,ওই দিন যদি সারভাইব করে যেত তাহলে কী হতো:বুয়েট শিক্ষিকা

বাংলাদেশের সবথেকে বড় বিদ্যাপিঠ বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট)। বুয়েটে পড়ার জন্য সকল শিক্ষার্থীরা মুখিয়ে থাকে সারা বছর। কিন্তু কিছুদিন আগে এই বুয়েটে ঘটে গেলো বাংলাদেশের বর্তমান সময়ের সবথেকে কলঙ্কিত একটি ঘটনা। আবরার ফাহাদ নামের একজন মেধাবী শিক্ষার্থী তার নিজেরই সহপাঠিদের হাতে নির্মম ভাবে জীবন দেয়। সারা দেশের মানুষকে বিষয়টি ভিষন Read more: আমি খালি ভাবছি,ওই দিন যদি সারভাইব করে যেত তাহলে কী হতো:বুয়েট শিক্ষিকা

আমার ক্ষমতা তো সরকারের ক্ষমতার ওপরে না,যতটুকু পেরেছি করেছি : বুয়েট উপচার্য

দেশের সব থেকে বড় বিদ্যাপিঠ বুয়েটই এখন সব থেকে সমালোচনার বিষয় হয়ে দাড়িয়েছে বর্তমান পরিস্থিতিতে। আবরার ফাহাদের ঘটনাকে কেন্দ্র করে সকলেই এখন বুয়েটের উপযার্য,প্রশাসন সকল কিছুর সমালোচনা করছে। এ দিকে আবরারের ঘটনার সব থেকে বেশি সমালোচনা হয়েছে যার নামে তিনি হলে বুয়েট ভিসি অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম। আবরের ঘটনার পর থেকেই Read more: আমার ক্ষমতা তো সরকারের ক্ষমতার ওপরে না,যতটুকু পেরেছি করেছি : বুয়েট উপচার্য

রাবি উপাচার্যের সেই শ্লোগানের ব্যাখ্যা দিলো রাবি প্রশাসন

সারা দেশের এখন অন্যতম আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে রাবি উপচার্য।তার একটি বিতর্কিত শ্লোগানকে কেন্দ্র করে চলছে তার বিরুদ্ধে তুমুল সমালোচনা। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে বক্তব্যের শেষে ’জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’ স্লোগানের পর ’জয় হিন্দ’ স্লোগান দিয়েছেন উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান। গত ২৬ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ Read more: রাবি উপাচার্যের সেই শ্লোগানের ব্যাখ্যা দিলো রাবি প্রশাসন

বুয়েটের নেতারা আবাসিক হলগুলোকে বানিয়ে রেখেছে টর্চার সেল

বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, সাধারণত বুয়েট নামে
সবথেকে বেশি পরিচিত, এটি বাংলাদেশের একটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়, যা ইঞ্জিনিয়ারিং এবং অধ্যয়নের উপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করে স্থাপত্য। ১৯১২ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় এটি। বুয়েট বাংলাদেশের প্রকৌশল, স্থাপত্য ও নগর পরিকল্পনা অধ্যয়নের জন্য প্রাচীনতম ও সারাদেশের সব থেকে জনপ্রিয় একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। সারা Read more: বুয়েটের নেতারা আবাসিক হলগুলোকে বানিয়ে রেখেছে টর্চার সেল

অবিলেম্ব রাবি ভিসিকে জাতির সামনে ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানিয়েছেন সাদা দল

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে বক্তব্যের শেষে ’জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’ স্লোগানের পর ’জয় হিন্দ’ স্লোগান দিয়েছেন উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান! গত ২৬ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ সিনেট ভবনে যৌথভাবে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে রাবি উপাচার্য ’জয় হিন্দ’ স্লোগান দেন বলে অনুষ্ঠানে উপস্থিত একাধিক শিক্ষক নিশ্চিত করেছেন। Read more: অবিলেম্ব রাবি ভিসিকে জাতির সামনে ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানিয়েছেন সাদা দল