সোমবার রাত থেকে শুরু হওয়া থেমে-থেমে বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে জাতীয় সংসদের প্রবেশের রাস্তা। এতে যারা সংসদ থেকে পায়ে হেটে বের হচ্ছেন, তারা পড়েছেন বেকায়দায়। এছাড়া সংসদে প্রবেশের সময়ও বেগ পেতে হচ্ছে অনেকের।
মঙ্গলবার (২৪ জুলাই) দুপুরে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, মানিক মিয়া এভিনিউ হয়ে সংসদে প্রবেশের রাস্তায় প্রায় হাঁটু পরিমাণ পানি উঠে গেছে। সংসদ থেকে যখন কোনো গাড়ি বের হচ্ছে, তখন ঢেউ এর সৃষ্টি হচ্ছে। একই অবস্থা তৈরি হচ্ছে সংসদে গাড়ি প্রবেশের ক্ষেত্রেও।
রাস্তায় পানি উঠে যাওয়ার কারণে মানিক মিয়া এভিনিউ-এ চলাচলরত সাধারণ পথচয়ারীরাও পড়েছে বেকায়দায়। প্রায় হাঁটু পরিমাণ পানির উপর দিয়ে হেটে যেতে বেগ পেতে হচ্ছে পথচারীদের। কেউ কেউ প্যান্ট হাঁটুর উপরে তুলে হাটলেও কাউকে কাউকে প্যান্ট ভিজিয়েই হাটতে দেখা গেছে।
এদিকে, বৃষ্টির কারণে রাজধানীর কাওরান বাজার, মতিঝিল, আজিমপুর, পলাশী, কাজীপাড়া, শেওড়াপাড়া, কালশী, পল্লবী, রামপুরা, মালিবাগ, মৌচাক, শান্তিনগর, কাঠালবাগানসহ বিভিন্ন স্থানে জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে। এতে দুর্ভোগে পড়েছে নগরবাসী। সড়কে জলাবদ্ধতার জন্য দেখা দিয়েছে তীব্র যানজট। এছাড়া দেশের বিভিন্ন স্থানেও বৃষ্টির কারণে দুর্ভোগে পড়েছে মানুষ।
আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, আজ সকাল ৬টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে ১৪২ মিলিমিটার। সন্দীপে বৃষ্টিপাত হয়েছে ৮৫ মিলিমিটার। আর চট্টগ্রাম ৩৭ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। মৌসুমী বায়ু সক্রিয় থাকায় আগামী কয়েকদিন বৃষ্টির এ প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে।
বেলা ১১টার দিকে আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ২৯ জুলাই পর্যন্ত সারা দেশে ভারী বৃষ্টি হবে। দেশের আটটি বিভাগে মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টি হতে পারে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টা। কোথাও কোথাও ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হবে। এর সঙ্গে বজ্রবৃষ্টি। আগামী ৭২ ঘণ্টায় এই পরিস্থিতির তেমন কোনো হেরফের হবে না। মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে এই ভারী বৃষ্টি হচ্ছে। এই মৌসুমি বায়ু সারা দেশের ওপর সক্রিয় রয়েছে।
আবহাওয়া অধিদফতর জানায়, উত্তর-পশ্চিম ঝাড়খণ্ড এবং কাছাকাছি এলাকায় অবস্থানরত সুস্পষ্ট লঘুচাপটি উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে উত্তর-পশ্চিম মধ্য প্রদেশ এবং কাছাকাছি উত্তর প্রদেশে অবস্থান করছে। দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু (বর্ষা) বাংলাদেশের উপর সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় বিরাজ করছে। নিম্নচাপের প্রভাবে গত কয়েকদিন সমুদ্রবন্দরগুলোতে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত থাকলেও সোমবার থেকে সংকেত নামিয়ে ফেলা হয়েছে।
বিডি২৪লাইভ