আকাশপথে ঢাকা থেকে চট্টগ্রামে নেওয়া হবে কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী, এলআরবি ব্যান্ডের ভোকাল আইয়ুব বাচ্চুর মরদেহ। পরে সেখানে মায়ের কবরের পাশে শায়িত হবেন জনপ্রিয় এই সংগীত শিল্পী।
২০ অক্টোবর, শনিবার আইয়ুব বাচ্চুর ব্যান্ড এলআরবির ব্যবস্থাপক শামীম আহমেদের বরাত দিয়ে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।
শামীম আহমেদ জানান, শনিবার সকাল ১০টায় ইউএস বাংলার উড়োজাহাজে করে আইয়ুব বাচ্চুর মরদেহ ঢাকা থেকে চট্টগ্রামে নেওয়া হবে। আইয়ুব বাচ্চুর প্রবাসী দুই সন্তান ও স্বজনসহ বেশ কয়েকজন একই উড়োজাহাজে চট্টগ্রামে যাওয়ার কথা রয়েছে।
চট্টগ্রামে তৃতীয় জানাজা শেষে শনিবার বিকেলে মায়ের কবরের পাশে বাংলাদেশের ব্যান্ড সংগীতের কিংবদন্তি এই শিল্পীকে শায়িত করা হবে বলেও জানান শামীম অাহমেদ।
জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী আইয়ুব বাচ্চু ১৮ অক্টোবর, বৃহস্পতিবার সকালে ইন্তেকাল করেন। ১৯ অক্টোবর, শুক্রবার সকাল সোয়া ১০টার দিকে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে নেওয়া হয় কিংবদন্তি এ ব্যান্ড শিল্পীর মরদেহ। সেখানে সংগীত ভুবনের অনেক তারকা ছাড়াও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ আরও কয়েকজন রাজনৈতকি ব্যক্তিবর্গ আসেন শ্রদ্ধা জানাতে।
শহিদ মিনারে শ্রদ্ধা জানানো শেষে আইয়ুব বাচ্চুর মরদেহ নেওয়া হয় জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে। সেখানে বাদ জুমা তার প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত। এরপর মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় মগবাজারে তার নিজের স্টুডিও এবি কিচেনে। পরে চ্যানেল আই প্রাঙ্গণে দ্বিতীয় জানাজা শেষে আইয়ুব বাচ্চুর মরদেহ স্কয়ার হাসপাতালের হিমঘরে রাখা হয়।
আইয়ুব বাচ্চুর জন্ম ১৯৬২ সালে চট্টগ্রামে। ১৯৭৮ সাল থেকে তিনি বাংলাদেশে ব্যান্ডসংগীত চর্চা করছিলেন। ’ফিলিংস’ নামের একটি ব্যান্ড দিয়ে ক্যারিয়ারের সূচনা হয় তার। ১৯৮০ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত তিনি ’সোলস’ ব্যান্ডের লিড গিটারিস্ট ছিলেন। ১৯৯১ সালে প্রতিষ্ঠা করেন এলআরবি।