হাইস্পিড ট্রেন চলাচলের কাজ শুরু হয়ে গেছে জানিয়ে রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, প্রত্যেক জেলার সঙ্গে রেলের সংযোগ হবে। উত্তরবঙ্গের জন্য আলাদা রেল ব্রিজ নির্মাণের পরিকল্পনা করা হয়েছে। পঞ্চগড় থেকে বাংলাবান্ধা, চিলাহাটি থেকে হলদিবাড়ি  হয়ে ভারতের সাথে রেল যোগাযোগের কাজ অচিরেই শুরু হবে। তিনি বলেন, মিয়ানমার হয়ে চীনের সাথে রেল যোগাযোগের উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। এসব কাজ জনগণের চাওয়ার আগেই সরকার উদ্যোগী হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বে রেল যোগাযোগে বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনা হবে। সরকার রেলওয়ে যোগাযোগকে বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে কাজ শুরু করেছে বলেও তিনি জানান।
বুধবার দুপুরে পঞ্চগড় জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে সরকারি কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময়কালে রেলমন্ত্রী এসব কথা বলেন। 
তিনি আরও বলেন, দেশের পরাজিত শক্তিকে মাথা উচু করে দাঁড়াতে দেয়া যাবে না। যারা মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে বিকৃত করে তাদের আবার কিসের অধিকার? কিসের গণতন্ত্র?
’’বিশ্বের কোনো দেশেই স্বাধীনতা বিরোধিতাকারীদের কোনো অধিকার থাকে না। তাদের রাজনৈতিক অধিকার থাকে না, গণতন্ত্রের অধিকার থাকে না, সম্পদের অধিকার থাকে না। আমরা তাদের থাকতে দিয়েছি। তাদের চিকিৎসা পড়ালেখার সুযোগ দিয়েছি। তারা আবার কিসের গণতন্ত্র চায়? সময় এসেছে তাদেরকে এদেশের মাটিতে কোনো ভাবেই দাঁড়াতে দেয়া হবে না । 
জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় পুলিশ সুপার গিয়াস উদ্দিন আহমেদসহ বিভিন্ন দপ্তরের প্রধানগণ উপস্থিত ছিলেন। রেল মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পাওয়ার পর এই প্রথম নিজের জেলায় আসেন নুরুল ইসলাম। আগামী কয়েকদিন পঞ্চগড় রেলস্টেশন পরিদর্শনসহ  নানা কর্মসূচিতে অংশ নেবেন তিনি।
সূত্র:বিডি-প্রতিদিন