সারা বিশ্বে চলছে করোনা ভাইরাসের তান্ডব। আর এই তান্ডব ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বের অন্যততম বড় দেশ ভারতেও। দেশটি এখন করোনায় নাজেহাল রয়েছে। বিশেষ করে কোলকাতার এর অবস্থাও করোনার কারনে এখন হয়ে আছে বেশ নাজেহাল। আর তারই উপরে যেন খাঁড়ার ঘা হয়ে এলো ঘূর্ণিঝড় আম্ফান। ভারত ও বাংলাদেশের পাশ দিয়ে গেছে সুপার সাইক্লোন। যাতে বাংলাদেশের থেকেও বেশি ক্ষতি হয়েছে কোলকাতার।
দুর্বল হয়ে বাংলাদেশের উপকূলে আঘাত হানার আগে পশ্চিমবঙ্গে তাণ্ডব চালিয়েছে আম্ফান। ভারতের এই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী এই ঘূর্ণিঝড়ের ভয়াবহতা প্রকাশ করতে গিয়ে বলেন, কোভিড-১৯ এর চেয়েও বড় দুর্যোগ ঘূর্ণিঝড় আম্ফান।

বুধবার সংবাদ সম্মেলনে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, ’রাজ্যের দক্ষিণাংশের পুরোটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আমরা হতভম্ব। দক্ষিণ ও উত্তর চব্বিশ পরগণা ঝড়ের দাপটে প্রায় ধ্বংস।

ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরূপণ করতে তিন থেকে চারদিন লাগবে। বিদ্যুৎ সরবরাহ বিচ্ছিন্নের সঙ্গে অনেক বাড়িঘর ধ্বংস করেছে ঘূর্ণিঝড়। সেতু ও বাঁধেরও ব্যাপক ক্ষতি করেছে।’

মমতার তথ্য মতে, প্রশাসনের সহায়তায় প্রায় ৫ লাখ মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

এ দিকে ঘূর্ণিঝড় আমপানের কারনে কোলকাতায় স্মরনকালের সব থেকে বড় ক্ষতি হয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে। বিশেষ করে রাজ্যটির যোগাযোগ ব্যবস্থাও ভেঙে গেছে একেবারে। যার ফলে এ ক্ষত সারিয়ে উঠতে সময় লাগবে অনেক। জানা গেছে এই ঘূর্ণিঝড়ের কারণে ভূমিধসে ভারতের পূর্বাঞ্চলে অন্তত ১২ জনের মৃ’/ত্যু’/ র খবর নিশ্চিত করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display