একই অপরাধে একাধিক মামলা করা আইন ও সংবিধান লঙ্ঘনের শামিল বলে মন্তব্য করেছেন সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন।
বুধবার দুপুরে সুপ্রিমকোর্টি আইনজীবী সমিতির উদ্যোগে সমিতির মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।
জয়নুল আবেদীন বলেন, ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে সংক্ষুব্ধ হয়ে মাসুদা ভাট্টি একটি মামলা করেছেন। কিন্তু একই ঘটনায় সারা দেশে যুবলীগ, মহিলা লীগ একের পর এক মামলা করছেন, যা সংবিধান ও আইনের লঙ্ঘন।
এ সময় তিনি আরও বলেন, মানহানির মামলাটি ৫০০ ধারায় জামিনযোগ্য অপরাধ। কিন্তু তাকে জামিন দেয়া হয়নি, যা অপরাধ।
’যারা তার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন, তারা কোনো সাধারণ নারী নন, সবাই বিশেষ রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী। সম্পূর্ণ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যেই এ মামলা করা হয়েছে। ব্যারিস্টার মইনুলকে সমাজে হেয়প্রতিপন্ন করতেই এসব মামলা।’
সংবাদ সম্মেলনে অবিলম্বে ব্যারিস্টার মইনুলকে মুক্তি দেয়ার আহ্বান জানানো হয়।
অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন বলেন, সরকারি দলের লোকেরা দেশের আইন মানে না, সংবিধান মানে না। তারা কিছুই মানে না।
সুপ্রিমকোটি আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, ব্যারিস্টার মইনুল জাতীয় ঐক্যপ্রক্রিয়ায় সম্পৃক্ত না হলে উনার বিরুদ্ধে কিছুই করা হত না।
এদিকে একই সময় ব্যাবিস্টার মইনুলের মুক্তির দাবিতে সুপ্রিমকোর্ট প্রাঙ্গণে মিছিল সমাবেশে করেছেন শতাধিক আইনজীবী।
এতে বক্তব্য রাখেন, অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ আলী, রফিকুল ইসলাম তালুকদার রাজা, কাজী জয়নাল আবেদীন, কাজী কামরুল ইসলাম সজল, মির্জা আল মাহমুদ প্রমুখ।
তথ্যসূত্র: যুগান্তর