কালকে বাংলাদেশ ভোটে যাবে। এবারের ভোট নানা কারণে বিশিষ্টতা অর্জন করেছে। দুঃখজনক হলো এর বেশিরভাগ কারণই নেতিবাচক। এই কয়দিন যা হয়েছে, হয়েছে। এখন আমরা আশা করি সব হতাশা দূর করে শেষ পর্যন্ত একটা সুষ্ঠু নির্বাচন দেখবে বাংলাদেশ। পেশাদারিত্বের পরিচয় দেবে আমাদের পুলিশ, সেনাবাহিনী এবং নির্বাচনী দায়িত্বে নিয়োজিত কর্মকর্তারা।
জনগণের মাঝে যারা আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোটের বিজয় দেখতে চান, তারা যেন দলে বলে কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দেন। যারা বিএনপির নেতৃত্বাধীন ঐক্যফ্রন্টের বিজয় দেখতে চান, তারাও দলে বলে কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিবেন।
আজকে দুইটা কথা আছে বলবার।
এক: কেউ কাউকে ভোট দিতে বাধা দিবেন না। কারণ, এর মাধ্যমে নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হবে। এবং সেই প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচনের বিজয়ী দিয়ে আমরা শক্তিশালী সরকার বা গণতন্ত্র কিছুই পাবো না।
দুই: সবাই মিলে পরাজয়ের মূল্য কমাতে হবে। আমরা সবাই জানি, আমাদের দেশে কেউ হারতে চায় না। কারণ, হারলে এখানে চড়া মূল্য দিতে হয়। এই সংস্কৃতির পরিবর্তন ঘটাতে হবে বিজয়ী দলকেই। বিরোধী দল এবং মতের জন্য সহনশীল পরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে। মনে রাখতে হবে, কোনো না কোনো দিন আপনাকেও ক্ষমতার বাইরে থাকতে হবে। এখন সহনশীল আচরণ করার পুরস্কার তখন পাবেন। ধন্যবাদ।
(ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)