বাংলাদেশ এখন বর্তমানে সরগরম রয়েছে ঢাকা সিটি নির্বাচন নিয়ে।বলতে গেলে সারা দেশের আনাচে-কানাচে শহরের তার দোকান থেকে শুরু করে গ্রামের আড্ডা সবখানে এখন চলছে ঢাকা সিটি নির্বাচন নিয়ে আলোচনা। ইতিমধ্যে প্রচার-প্রচারণা শুরু হয়েছে ব্যাপক। তবে নতুন করে ব্যক্তি বিপত্তি বেঁধেছে নির্বাচন পেছাতে বলছে সবাই। আগামী ৩০ জানুয়ারি ঢাকা সিটি নির্বাচনের সময়ে হিন্দুধর্মাবলম্বীদের রোয়েছে পূজো। আরে পূজো উপলক্ষে সকলেই বলছে নির্বাচন পেছানো উচিত। এবার সকলেরই যুক্তির দাবিকে সমর্থন জানিয়ে নিজের মতামত প্রকাশ করলেন আসিফ নজরুল।ফেসবুকে তিনি এ নিয়ে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন পাঠকদের উদ্দেশ্যে স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো:-

৩০ তারিখ সত্যিই পুজো হলে সেদিন নির্বাচন হওয়া উচিত না। একইসাথে আরেকটা কথা বলি। পবিত্র জুম্মার দিনে বা গুরুত্বপূর্ণ্ রোজার দিনে বাংলাদেশের ক্রিকেট খেলা ফেলা হয়। গত কয়েক বছরে এটা অনেকবার হয়েছে। এটা হওয়া ঠিক না।
ইচ্ছে করলে এসব এড়ানো যায়। ইচ্ছেটা হয়না কেন জানিনা!


প্রসঙ্গত, ঢাকা সিটি নির্বাচন নিয়ে চরম উত্তেজনা শুরু হয়ে গেছে ইতিমধ্যেই। ঢাকাদক্ষিণ ঢাকা উত্তর সিটিতে বিএনপি-আওয়ামীলীগ ঘোষণা করছে মনোনীত প্রার্থী। আরিফা শিশুকাল ইতিমধ্যেই শুরু করে দিয়েছে জোর প্রচারণা। নতুন নতুন সকল কৌশল নিয়ে তারা মাঠে নেমেছে ভোটারদের আকৃষ্ট করতে।ইতিমধ্যেই নতুন এক প্রচারণায় ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করে ফেলেছেন উত্তরের মেয়র আতিকুল ইসলাম। এছাড়া সমানভাবে নির্বাচনের মাঠে রয়েছে বিএনপির তাবিথ আউয়াল ও খোকা পুত্র ইশরাক। সকলেই তাদের নিজ নিজ পদ্ধতিতে ভোটারদের আকৃষ্ট করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। ৩০ জানুয়ারি কে হাসবেন শেষ হাসি এটাই দেখার বিষয়।