বর্তমান সময়ে বাংলাদেশের জনগনের কাছে সব থেকে আলোচিত এবং জনপ্রিয় একটি নাম ড. মিজানুর রহমান আল আজহারী। বছরের বেশির ভাগ সময়টা তিনি কাটান পড়াশুনার কাজে মালয়েশিয়াতে। আর বছরের শেষের দিকে বাংলাদেশে এসে তিনি ওয়াজের মাধ্যমে মানুষকে ইসালমের দাওয়াত দিয়ে থাকেন। প্রতি বছরের মত এ বছরেও তিনি আসেন দেশে। তবে এবার সকল প্রোগ্রাম শেষ না করেই ফিরে গেলেন মালয়েশিয়াতে। আর দেশে থাকাকালিন অবস্থায়ই তার নামে হয়েছে অনেক সমালোচনা। এবার আজহারীকে নিয়ে মুখ খুললেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় রাজনিতীবিদ গোলাম মাওলা রনি

নিজের ইউটিউব চ্যানেলে একটি ভিডিও আপলোড করেছেন গোলাম মাওলা রনি যেখানে আজহারীকে নিয়ে বিতর্কের বিষয়ে বিশ্লেষণ করেছেন। আর সেই ভিডিওটি ফের সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। ওই ভিডিও রনি বলেছেন, সময়ে অনেক মানুষের ভালোবাসার বিমূর্ত প্রতীকে পরিণত হয়েছেন মিজানুর রহমান আজহারী। তাকে এক নজর দেখতে, তার বক্তব্য শুনতে মানুষ ছুটে যান। তাকে এই জনপ্রিয়তা ও সম্মান আল্লাহ রাব্বুল আলামিন দিয়েছেন। কারণ আল্লাহ না চাইলে পৃথিবীর সব সম্পত্তি দিয়ে, রাষ্ট্রীয় পদ ও ক্ষমতা ব্যবহার করেও এমন জনপ্রিয়তা আর ভালোবাসা পাওয়া যায় না।


মাহফিলে আজহারীর বক্তব্য বিষয়ে রনি বলেন, শৈশবকাল থেকেই দেলোয়ার হোসেন সাঈদির ওয়াজ শুনেছি। তাই সম্প্রতি বাংলাদেশের ওয়াজিনরা যেসব ওয়াজ করে তার বেশিরভাগই আমার কাছে পুরনো। আজহারীর ওয়াজ শুনেও এতে নতুন কোনো তথ্য পেয়েছি বলে মনে হয়নি আমার। এরপরেও তাকে নিয়ে বির্তক চলছে। মিজানুর রহমান আজহারীর সমালোচনা যারা করছেন, তাকে নিয়ে বিতর্ক করছেন বা কুৎসা রটাচ্ছেন তারা মূলত তিনটি গ্রুপে বিভক্ত বলে মনে করেন গোলাম মওলা রনি। তিনি বলেন, আজহারীকে নিয়ে অপপ্রচারকারী গ্রুপের প্রথমটি হলো- যারা ইসলামকে পছন্দ করে না, নামাজ-রোজার ধার ধারে না, যারা মদ নিয়ে মত্ত থাকেন, যাদের অনুসরণের মতো কোনো ব্যক্তিত্ব নেই। তারাই আজহারীর কুৎসা রটান। রনি বলেন, এসব মানুষদের অনেকে ঈর্ষান্বিত হয়ে আজহারীর বিরোধিতা করেন। আজহারীর মতো জনপ্রিয়তা, ভালোবাসা তারা পান না। আজহারীর মতো যারা কায়িক শ্রম আর মেধা খরচ করে গবেষণামূলক কাজ করে বাংলাদেশে সাড়া ফেলেছেন তাদেরকে এসব লোক ঈর্ষা করে।

এর পর রনি বলেন, আজহারীর বিরুদ্ধে কথা বলা দ্বিতীয় গ্রুপটি ইসলামপন্থী। তারা শিক্ষিত, মার্জিত এবং তাদেরও অসংখ্য ভক্ত ও মুরীদ রয়েছে। তারা ইসলামি ব্যক্তিত্ব। কিন্তু তারাও আজহারীর জনপ্রিয়তাকে ভয় পেয়ে তার বিরুদ্ধাচারণ করছেন। তারা মনে করেন, আজহারীর জনপ্রিয়তা যত বাড়বে তাদের মুরিদের সংখ্যা তত কমবে। আগের মতো তার মান-মর্যাদা থাকবে না।

রনি বলেন, সেসব আলেম ওলামাদের আয় রোজগার ওয়াজ-মাহফিল করেই হয়ে থাকে। আজহারীর জনপ্রিয়তার কারণে তাদের মাহফিলে মুসল্লির সংখ্যা কমে যাচ্ছে। তারা আর আগের মতো অফার পান না। তাদের কথায় মুসল্লিরা আর সেভাবে খুশি হয় না। হাতে টাকাও গুঁজে দেয় না। তিনি বলেন, আমরা দেখেছি, মাহফিলে লাফিয়ে লাফিয়ে জিকির করা, মঞ্চে পা ঝুলিয়ে মুরিদদের কদমবুসি নেয়া, ভক্তদের থেকে টাকা নেয়া কিছু ওয়াজিনদের জনপ্রিয়তা ইদানীং কমে যাচ্ছে।

এমন সব বক্তারা দেখছেন, আজহারীর মতো তরুণরা এসে তাদের মতো কাজ করছেন না। তবুও তাদের ভক্ত-অনুরাগীর শেষ নেই। এজন্য তারাও ঈর্ষপরায়ণ হয়ে পড়েছেন। রনি বলেন, আরেকটি গ্রুপ আছে যারা রাজনীতি করেন। এসব রাজনীতিবিদদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষে কথা বলে নিজের অবস্থান তৈরি করে। মূলত তারা যুদ্ধ করেনি, তারা মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তিও না। তাদের অনেকেই মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানিদের কাছে গরু, ছাগল আর মুরগি বিক্রি করেছেন। কিন্ত তারা এখন মুক্তিযোদ্ধার তাবেদার হয়েছেন।

এই শ্রেণি ধরিবাজ রাজনীতিবিদরা সবসময়ই সমাজে বিভেদ ও বিশৃঙ্খলা তৈরিতে সচেষ্ট থাকে। এরা আজহারীর মতো জনপ্রিয় ব্যক্তিত্বদের স্বাধীনতা বিরোধীদের সঙ্গে মিলিয়ে তাদের বির্তকিত করা চেষ্টা করছেন। এর পর রনি বলেন, কিছু কিছু লোক আছেন যারা জনপ্রিয়তা পেতে মুখিয়ে থাকেন। কিন্তু তাদের ফেসবুক পোস্ট, ইউটিউবে তাদের বক্তব্য তেমন কেউ দেখে না। তারা তখন সমাজের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে ট্রেন্ডিং, হট যেসব ইস্যু রয়েছে তা নিয়ে নেতিবাচক মন্তব্য করে আলোচনায় আসতে চান। এমন কিছু লোক মিজানুর রহমান আজহারীর সমালোচনা শুরু করেছেন।

প্রসঙ্গত, গোলাম মাওলা রনি বাংলাদেশের এক সময়ের জনপ্রিয় একজন রাজনিতীবিদ। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের হাত ধরেই তার রাজনিতীতে উত্থান ঘটে। আওয়ামীলীগের ব্যানারে নির্বাচন করে হয়েছিলেন সংসদ সদস্যও। তবে বেশ কয়েকবছর আগে আওয়ামীলীগের রাজনিতী থেকে অব্যাহতি নেন তিনি। এরপর কথা বলতে থাকেন বিএনপির সুরে। একটা সময় রাজনিতীর মাঠে বেশ সরব থাকলেও বর্তমানে তিনি বেশ আড়ালেই থাকেন রাজনিতী থেকে। মাঝে মাঝে কিছু কিছু মন্তব্যের কারনে হন সংবাদ মাধ্যমের শিরোনাম।

আরো পড়ুন

করোনা নিয়ে বরিস জনসনকে ৭ বছর বয়সী বালিকার চিঠি, উত্তরও দিলেন বরিস

03 April, 2020 | Hits:5143

মহামারি করোনা ভাইরাস এখন একটি বৈশ্বিক সমস্যায় পরিনিত হয়েছে। এই করোনা ভাইরাষ তছনছ করে দিয়েছে পুরো বিশ্ববাসিকে। ইতিহাসের স...

বাড়িতে ডেকে ১৫ শ লোক খাওয়ানোর পর নিজেই জানলেন তিনি করোনায় আক্রান্ত

04 April, 2020 | Hits:2191

চীনের করোনা ভাইরাস এরই মধ্যে বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে। একই সাথে প্রতিদিন বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে করোনা ভাইরাসে ...

বিতর্কের অবসান ঘটিয়ে বিপুল পরিমাণ সাহায্যের ঘোষণা দিলেন শাহরুখ খান,নিয়েছেন ৭ টি উদ্যোগ

03 April, 2020 | Hits:2096

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারনে এখন পুরো ভারত বর্ষ জুরে চলছে লকডাউন। আর ভারতে রিতিমত লাফিয়ে বাড়ছে করোনা ভাইরাস। বিশ্ব...

চিন্তিত গবেষকরা, বাংলাদেশে এসে রূপ বদলে ভিন্ন আচরণ করছে করোনাভাইরাস

05 April, 2020 | Hits:1700

করোনা ভাইরাস বিশ্বব্যাপি আতঙ্ক সৃষ্টিকারি একটি ভাইরাসের নাম। পুরো বিশ্ববাসিকে ঘরবন্দি করে দিয়েছে এই করোনা ভাইরাস। এখন সা...

রাজধানী ঢাকার একটি এলাকায় সবচেয়ে বেশি করোনা আক্রান্ত রোগী সনাক্ত

04 April, 2020 | Hits:1104

বাংলাদেশ একটি ছোট ঘনবসতি পূর্নদেশ। নানা ধরনের সমস্যায় প্রতিনিয়ত জর্জরিত থাকে এই দেশটি। আর এবার এমন একটি সমস্যা দেখা দিয়ে...

অবশেষে করোনাভাইরাসের দুর্বলতার খোঁজ পেলেন গবেষকরা

05 April, 2020 | Hits:927

বিশ্ব এখন আক্রান্ত মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়া প্রা ’ণ ’ঘা ’তী করোনাভাইরাসে। আর কোন কিছুতেই মানবজাতী মুক্তি পাচ্ছে না এই করো...