সংসার মানুষের জীবনে সব থেকে বড় একটি বিষয়। এই সংসার নিয়েই গড়ে ওঠে সমাজ রাষ্ট্র সব। তবে এই সংসারেই অনেক সময় হয়ে থাকে নানা ধরনের কলহ ছাড়াও আরো অনেক নানা ধরনের বিষয়। কিন্তু তার পরেও এই সংসার নাম জানে যাত্রী হয় মোটামোটি সবারই। সম্প্রতি এ নিয়ে লিখেছেন দেশের বিশিষ্ট নারী লেখিকা রুমানা ওরফে শুদ্ধ বালিকা। পাঠকদের উদ্দেশ্যে তার সেই লেখনি তুলে ধরা হলো হুবহু:- আমি এমন এক মেয়েকে চিনি যে তার ভালোবাসার মানুষটিকে বিয়ে করে নিজের তিল তিল করে গড়ে তোলা ক্যারিয়ার ছেড়ে গৃহিণী হয়েছিল হাসিমুখে। ওর চাওয়া ছিল একটাই, "একটা সুখের সংসার"। পেয়েও গেলো সেই সংসার তাও আবার ভালোবাসার মানুষটির হাত ধরে। ওকে যেদিন আমি বিয়ের সাজে দেখেছিলাম সেদিন রীতিমতো অবাক হয়েছিলাম আমি। মিডিয়া জগতে নাটক এবং সিনেমা করা মেয়েটা, যার পোশাকে, সাজ সজ্জায় সবসময় একটা আধুনিকতার ছোঁয়া থাকতো সেই মেয়ে তার বিয়ের সাজ এবং পোশাক এতো বেশি মলিন বেছে নিবে তা কল্পনাতেও আসেনি আমার। যেখানে খুব সাদামাটাভাবে চলাফেরা করা মেয়েটাও বর্তমান ট্রেন্ড অনুযায়ী বিয়েতে বেশ জমকালো সাজ দেয় সেখানে ওর থেকে এই ব্রাইডাল লুক দেখাটা আমার জন্য বিষ্ময়কর ছিল।
সুখের সংসার শুরু হলো ওদের। দু’জনের ভালোবাসা বেশ মধুর। রীতিমতো হিংসা করার মতোই ছিল। ফেসবুকে যতোটানা সুখি দেখাতো বাস্তবে ছিল তার চাইতেও বেশি সুখি। অত সাজানো গোছানো ক্যারিয়ার ছেড়ে গৃহিণী জীবন বেছে নেয়ায় ওর বরেরো ওর প্রতি সম্মানটা ছিল বেশ ভালোই। শত ব্যস্ততার মাঝেও স্ত্রীকে সময় দিতে ভুল হতোনা ওর বরের। ওদের সুখের সংসার দেখে এক অদ্ভুত ভালোলাগা কাজ করতো আমার। খুঁটিনাটি কত গল্পই হয়েছে ওর সংসার নিয়ে।

বিয়ের তিন’বছর পর বাচ্চা নিল ওরা। সুখ যেনো উপচে পড়ছে ওদের টোনাটুনির সংসারে। ওর বর গর্ভাবস্থায় ওর দায়িত্ব কারও হাতে দিতে রাজি নয়। নিয়মিত চেকাপ করানো, খাবার খাওয়ানো সবকিছু একরকম নিজেই করে নিয়েছে। একটা ছোট্ট কাজের মেয়ে রেখেছিল বটে, তবে তার কাজ ছিল ওর সাথে গল্প করা। প্রেগন্যান্সির সময়টা কেন জানি ও অদ্ভুত রকমের বাচাল হয়ে গিয়েছিল। কথা বলতে না পারলেই রেগে যেতো। এভাবেই করে কেটে যাচ্ছে সময়। তারপর একদিন ওর কোল আলো করে এলো ফুটফুটে এক সন্তান।

সন্তান উপহার দেয়ায় ওর বর ওকে হীরার আঙটি উপহার দিল। তিন জনের সংসার ভালোই কেটে যাচ্ছিল। হঠাৎ ওর বরের ইমার্জেন্সি কাজে ব্যাংকক যেতে হল। সাথে সহকর্মী আরও কয়েকজন যাচ্ছে। কিন্তু ওকে সাথে নেয়ার অপশন নেই। এটা কোন সমস্যাই ছিলনা। কোন রকম দ্বিধা ছাড়াই সাময়িক এই দূরত্বটুকু মেনে নিল দুজনই। আর সংসারের কাল শুরু হলো এখান থেকেই।

বউকে খুব খুব কেয়ার করা বরটা গত দু’বছরেরো অধিক সময় ধরে লিভিং এ আছে অন্য এক মডেলের সাথে। যাকে ও তার বরের ভালো বান্ধবী হিসেবেই জানে। যেদিন ও মা হল, সেদিন সেই মেয়েটা কত শত উপহার দিয়ে ওকে অভিবাদন জানালো। আলমারিতে ফেলে রাখা সখের পুরানো মোবাইলটা ঘাটতে গিয়েই বেড়িয়ে এলো এসব রহস্য। ওদের দুজনের প্রেমের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে তৃতীয় পক্ষের উপস্থিতি স্পষ্ট হল।

ব্যাংকক থেকে ফিরে আসার পর আলোচনায় বসলো দু’জন। ওর বর স্বীকার করলো সবটাই। প্রেমের প্রকাশে কতোটা চতুর হলে একই বিছানায় ঘুমিয়ে, একই সাথে শত সহস্র সময় কাটানো সত্ত্বেও প্রতারণা বুঝা সম্ভব হয় না? ওদের বাবুটার বয়স তখন ছয়মাস। দৃঢ় চিত্তে বাবুটাকে কোলে নিয়ে ওর সুখের স্বর্গ থেকে বেড়িয়ে পড়লো। আমি গিয়ে দেখা করলাম ওর সাথে। রেস্টুরেন্টের আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে বেশ অবাক হয়ে হাসতে হাসতে বললো, "সংসারতো করি নাই, বসে বসে মুটকি হইছি। আগের ফিটনেসে যেতে হবে।"

গতকাল টিভিতে দেখলাম ওকে, উপস্থাপনা করছে। জানতে পারলাম " আঠারো কেজি ওয়েট কমিয়ে নিজেকে নিয়ে এলো আগের সেই সুন্দরি রূপে। পর্দার সামনে আবারও সেই চটপটে মেয়েটি। ছয় বছর আগে মিডিয়ার পর্দায় ছিল এক তরুণীর লড়াই, আজ ছয় বছর পর শুরু হল একজন সিঙ্গেল মাদারের লড়াই। সেই যে সেদিন ছয়মাসের বাবুটাকে নিয়ে সংসার থেকে বেড়িয়ে এলো, আর কোনদিন যায়নি ফিরে। ফিরেছে ওর ক্যারিয়ারে।

দায়ে পরে অনুগত হওয়া আর ভালোবেসে অনুগত হওয়ার পার্থক্যটা হয়তো এখানেই। কিছুই করতে না পারা নারীটার স্বামীই একমাত্র অবলম্বন, শত আঘাত সহ্য করেও থেকে যেতে হয় কোন জালিমের কাছে। আর যে নারী অনেককিছু পেরেও ভালোবেসে হয়েছিল গৃহিনী সে এক দিকে নিশ্চিন্ত, জালিমের কাছে থেকে যাওয়ার মতো বাধ্যকতা তার নেই। নারী জীবনে অর্থ উপার্জন করা জরুরি নয়, কিন্তু ক্ষেত্র বিশেষে অর্থ উপার্জন করতে পারার জন্য যোগ্য হয়ে উঠা খুব জরুরি।


সমাজের এমন পরিস্থিতি এখন সর্বত্রই বিরাজমান। প্রতিটি স্তরে স্তরে এমন ধরনের ঘটনা ঘটে থাকে সব সময়। তার পরেও মানুষের টনক নড়ে না কোন ভাবে। যার ফলে প্রতিনিয়তই দেশে বেড়ে যাচ্ছে পরকিয়ার ঘটনা।

আরো পড়ুন

মেয়ের গোপন ভিডিও রেকর্ড করতেন মা, ভিডিও প্রতি টাকা দিতেন জামাই

23 November, 2020 | Hits:2321

প্রতিটি মানুষের জীবনে এমন এমন কিছু ঘটনা ঘটে থাকে যা মানুষকে করে তোলে অবাক। বর্তমান পৃথিবীতে সম্পর্কগুলোও কেমন যেন হয়ে যা...

অবশেষে জানা গেল কেন মৃত তরুণীদের ভোগের বস্তু বানাতেন সেই মুন্না

23 November, 2020 | Hits:1236

সারা দেশে একটি ঘটনা বেশ আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। আর এই ঘটনাটি প্রকাশ হবার পর থেকেই মানুষে মধ্য সৃষ্টি হয়েছে একটি আতঙ্ক। না...

যেদিন শুনলাম সাকিব পূজা উদ্বোধন করতে যাবে, আনন্দে বুকটা ভরে উঠেছিল:বিচারপতি মানিক

23 November, 2020 | Hits:969

সাকিব আল হাসান, বাংলাদেশের সব থেকে জনপ্রিয় একটি নাম। দেশের সব থেকে বড় ক্রিকেটার তিনি। সব সময়ই থাকেন দেশের আলোচনায়। তবে স...

সেদিন বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে করা সেই প্রশ্নের জবাব দেননি জিয়া,অস্থিরভাবে হাতঘড়ির দিকে তাকাচ্ছিলেন:খুশবন্ত

22 November, 2020 | Hits:503

বাংলাদেশের ইতিহাসে দুটি নাম সব থেকে বেশি জনপ্রিয়। একটি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান এবং অপরজন মেজর জিয়া বা জিয়াউর রহমান। দ...

অবশেষে গোল্ডেন মনিরের সঙ্গে প্রতিমন্ত্রীর সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুললেন ওবায়দুল কাদের

24 November, 2020 | Hits:295

সম্প্রতি বাংলাদেশের টক অব দ্য টাউনে পরিনীত হয়েছে একটি নাম। আর তা হলো গোল্ডেন মনির। এই নামটি এখন সারা দেশে উচ্চারিত একটি ...

নারী কাউন্সিলর এক চামেলীর দাপটেই অসহায় পুরো রেল কর্তৃপক্ষ

22 November, 2020 | Hits:245

বাংলাদেশ রেলওয়ে, বাংলাদেশের সরকারি খাতের সব থেকে অলাভজনক প্রতিষ্ঠান। প্রতিবছরই এই রেলখাতে ঘাটতি থাকে ব্যাপক পরিমানে। এ দ...