সম্প্রতি বাংলাদেশের একটি আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে দাড়িয়েছে লেখক মুস্তাকের ’/মৃ’/ত্যু’/। তার এই ঘটনাটি নিয়ে এখন সারা দেশে চলছে নানা ধরনের আলোচনা সমালোচনা। কেউই লেখক মুস্তাকের এই হঠাৎ প্রয়াণ মেনে নিতে পারছে না। এ নিয়ে শুরু হয়েছে নানা ধরনের আন্দোলনও। এ দিকে দেশের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব জনাব গোলাম মাওলা রনি লেখক মুস্তাকের এই প্রয়াণ নিয়ে দিয়েছেন একটি স্ট্যাটাস। পাঠকদের উদ্দেশ্যে তার সেই লেখনি তুলে ধরা হলো হুবহু:-

আরো পড়ুন

Error: No articles to display

তিনি ছিলেন নিপাট ভদ্রলোক, উচ্চ শিক্ষিত এবং আর্থিকভাবে সচ্ছল মানুষ। তার ছিল অভিনব উদ্ভাবনী ক্ষমতা, ঝুঁকি নেয়া এবং সফল হওয়ার ইতিহাস। ফলে বাণিজ্যিক ভাবে কুমির চাষের মতো ভ’/য়ং’/ক’/র, অভিনব এবং সাহসী এক উদ্যোগ নিয়ে তিনি সারা দেশের মানুষকে চমকে দিয়েছিলেন।
তিনি যদি শুধু ব্যবসা নিয়ে থাকতেন তবে হয়তো হতে পারতেন হাজার কোটি টাকার মালিক কোন রকম দুর্নীতি ছাড়াই। কিন্তু তার বিকেক, সাহস, বোহেমিয়ান চরিত্র এবং সহজাত লেখক স্বভাবের জন্য এই দুনিয়ার ভোগ বিলাস - পদ পদবী এবং ক্ষমতা তার অনুকূলে না গিয়ে প্রতিকূলে ছিল সব সময়।
আমি এতক্ষন যার কথা বললাম তিনি ’/মা’/রা’/ যাওয়ার পর হাল আমলে অনেক বিখ্যাত হয়ে পড়েছেন। তিনি যে খামার করেছিলেন সেখানে বহু দিন - বহু রাত তিনি ভ’/য়ং’/ক’/র’/ কুমিরদের সঙ্গে বসবাস করেছেন। কিন্তু কোনো কুমির তাঁকে মেরে ফেলেনি! এমনকি একটি ছোবলও দেয়নি ! কিন্তু রাষ্ট্র চালিত জেলখানাতে তিনি যেভাবে মরেছেন এবং যে কারনে ম’/রে’/ছে’/ন’/ তা যদি কুমিরেরা জানতো তবে আমাদের অনেকের মুখে সেই প্রাণীগুলো থু থু মারতো !
লেখক মুস্তাকের নিকট ক্ষমা চাইবার অধিকার আমার নেই - এই ঘটনার নিন্দা জানানোর নৈতিক অধিকারও আমার নেই। কারন গত আট মাসের দুঃসহ বন্দিদশার দিন গুলোতে আমি একটি দিনের জন্য তার পক্ষে একটি শব্দও উচ্চারণ করিনি। আমার এই অপরাধ, কাপুরুষতা এবং স্বার্থপরতার জন্য মুস্তাকের কোন আপনজন যদি প্রকাশ্য রাজপথে আমাকে উদম করে আচ্ছামতো ’/বে’/ত্রা’/ঘা’/ত’/ করতো তবে কিছুটা হলেও অনুশোচনার কবল থেকে রেহাই পেতাম।


এ দিকে লেখক মুস্তাকের এই প্রয়াণ নিয়ে ইতিমধ্যে ঢাকাতে শুরু হয়েছে ব্যাপক আন্দোলন। বিশেষ করে ঢাকার শাহাবাগে হয়েছে বেশ কিছু মিছিল মিটিংও। জানা গেছে এই সব প্রতিবাদি মিছিলে পুলিশ করেছে বেশ চার্জও। আর এ নিয়েই এখন সারা দেশে শুরু হয়েছে নানা আলোচনা সমালোচনা।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display