'যে আইন করতে যাচ্ছে তাতে বাস চালানো যাবে না :  ফারুক ভূইয়া এদিকে নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মাঝে গাড়ি ভাঙচুরের ঘটনায় নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে তৃতীয় দিনের মতো ফরিদপুর থেকে ঢাকাসহ সারাদেশের বাস চলাচল বন্ধ রেখেছে মালিক সমিতি ও শ্রমিকরা। এতে দুর্ভোগে পড়েছে সাধারণ যাত্রীরা। গত দুই দিন আন্তঃজেলার বাস চলাচলও বন্ধ রেখেছে শ্রমিক-মালিকরা।
রোববার ফরিদপুর পৌরবাস  টার্মিনালে দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা করে বাস না পেয়ে বাড়ি ফিরেছেন অনেকেই। কেউ কেউ বিকল্প পথে গন্তব্যে রওনা দিয়েছেন। কাউকে আবার বাস ছাড়ার আশায় অপেক্ষা করতে দেখা গেছে।
যাত্রীরা বলছেন, সকাল থেকে বাস স্ট্যান্ডে এসে অপেক্ষ করছেন। ঢাকা বা অন্য জেলায় যাওয়ার কোনো উপায় পাচ্ছেন না।
মাদারিপুর থেকে আসা রাজবাড়ীগামী জুলেখা পারভীন নামের এক যাত্রী বলেন, অনেক কষ্টে মাদারিপুর থেকে ফরিদপুর এসেছি। কিন্তু এখন রাজবাড়ী যাওয়ার বাস বা অন্য কিছু পাচ্ছি না। কিভাবে যাবো বুঝতে পারছি না।
জুলেখার মতো আরো অনেকেই ফরিদপুর পৌরবাস স্ট্যান্ডে এসেছেন, বাস না পেয়ে কেউ বাড়িতে ফেরত যাচ্ছেন, কেউবা আবার বিকল্প পথে ঢাকার দিকে রওনা দিচ্ছেন।
poriborton
 
.