আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আমি সাংবাদিক ছিলাম, ভালো সাংবাদিকতার সঙ্গে ছিলাম। মন্ত্রিত্ব গেলে আবারও সাংবাদিকতাতেই ফিরবো।
বুধবার (৫ নভেম্বর) ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে এ কথা বলেন তিনি।
ওবায়দুল কাদের বলেন, মন্ত্রিত্ব তো আর সারা জীবন থাকবে না, মন্ত্রিত্ব সব সময় থাকবে এমন তো কোনো কথা না, মন্ত্রিত্ব সব সময় থাকবে এই অহংকারও আমি করি না। অনেক বাঘা বাঘা মন্ত্রিরা এখন আর নেই। মন্ত্রিত্ব চলে গেলে আবার সাংবাদিক হয়ে যাব।
সেতুমন্ত্রি বলেন, সাংবা‌দিকরা তো স্মার্ট। যে কোনো ইনফরমেশন খুব তাড়াতাড়ি কালেক্ট করে ফেলে। মন্ত্রিত্ব গেলে আবার সাংবাদিকতা হব। সবসময় কী আর মন্ত্রিত্ব থাকবে? যে কোনো সময় ক্ষমতা চলে যেতে পারে। ক্ষমতায় আবার ফিরে আসব এরকম নিশ্চয়তা আর দিতে পারি না।
উল্লেখ্য, রাজনীতিতে আসার আগে দীর্ঘদিন সাংবাদিকতা করেছেন ওবায়দুল কাদের। যুক্ত ছিলেন বাংলার বাণী পত্রিকার সঙ্গে। এ পর্যন্ত তার লেখা নয়টি বইও প্রকাশিত হয়েছে। এখনও রাজনীতির পাশাপাশি লেখালেখিও করেন তিনি। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের
নোয়াখালী জেলার কোম্পানিগঞ্জের বড় রাজাপুরে জন্ম নেওয়া ওবায়দুল কাদের স্কুল-কলেজের গণ্ডি পেরিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে স্নাতক সম্পন্ন করেন। বর্তমানে তিনি ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদের পাশাপাশি সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বও সামলাচ্ছেন।
pbd