ফাইল ছবি
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঢাকা-৯ আসনে বিএনপির প্রার্থী মির্জা আব্বাসের মনোনয়নপত্র হাইকোর্টের আদেশে যাচাই-বাছাই শেষে বাতিল করেছেন রিটার্নিং অফিসার।
বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) দুপুরে তাকে অযোগ্য ঘোষণা করা হয়।
এর আগে মির্জা আব্বাসের মনোনয়নপত্র গ্রহণ করে আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে যাচাই-বাছাইয়ের নির্দেশ দেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন ছয় সদস্যের আপিল বিভাগের বেঞ্চ। একই সঙ্গে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ইসির আপিল নিষ্পত্তির নির্দেশ দেন আদালত।
গত মঙ্গলবার নির্বাচন কমিশনে থাকা মির্জা আব্বাসের মনোনয়নপত্র রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে পাঠানোর নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে রিটার্নিং কর্মকর্তাকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তার মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই সম্পন্ন করতে আদেশ দেওয়া হয়।
পরদিন বুধবার মির্জা আব্বাসের মনোনয়নপত্র রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে পাঠানোর জন্য হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ স্থগিত চেয়ে সুপ্রিমকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় আপিল করে নির্বাচন কমিশন।
তবে আজ সেই আপিল আবেদনের ওপর শুনানি শেষে হাইকোর্টের আদেশ বহাল রাখেন আপিল বিভাগ।
গত ২৮ নভেম্বর নির্ধারিত সময়ের পর ঢাকা-৯ আসনে মির্জা আব্বাসের পক্ষে তার সমর্থকরা মনোনয়নপত্র জমা দিতে যান। কিন্তু তা নিতে জমা নিতে অস্বীকৃতি জানান রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ের কর্মকর্তারা। সমর্থকদের অভিযোগ, মির্জা আব্বাসের ছবি দেখেই শেষদিনে মনোনয়নপত্র জমা নিতে গড়িমসি করেন তারা। তবে নির্বাচনী কর্মকর্তারা দাবি করেন, নির্ধারিত সময় শেষ হওয়ার পর মনোনয়নপত্র জমা দিতে আসায় তা জমা নেয়া সম্ভব হয়নি।