তুখোর মেধাবী, রাজনীতিতে সফল ও জনসেবা দক্ষতাসহ সব ক্ষেত্রে দেশে-বিদেশে আলোচিত একজন আপাদমস্তক সফল মানুষ আ হ ম মুস্তফা কামাল।
মেধাবী হিসেবে অনন্য পরিচয় দেওয়ায় স্থানীয়, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে তিনি সকল মহলে ’লোটাস কামাল’ হিসেবে সমধিক পরিচিত।তিনি সদ্য গঠিত মন্ত্রিপরিষদে অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব পান। এর আগে তিনি পরিকল্পনান্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন।
কর্ম, পথচলায় বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে হৃদয়ে ধারণ ও লালন করে তিনি দেশ ও দেশের মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন একাগ্রচিত্তে।এ রাজনীতিক কুমিল্লা তথা দেশের গর্ব। গত ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি চতুর্থবারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।
সম্প্রতি অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামালের কয়েকটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।আরিফুর রহমান নামের এক ফেসবুক ব্যাবহারকারী গত ১০ ফেব্রুয়ারি অর্থমন্ত্রীর কয়েকটি ছবি পোস্ট করেন।
ছবির ক্যাপশনে তিনি লেখেন- "অর্থমন্ত্রী লোটাস কামাল একজন অতি সাদা মনের মানুষ। নিজের এলাকা কুমিল্লার দল ভিক্টরিয়ান্স জিতলে আনন্দে অতিথি খেলোয়াড়কে যেমন জড়িয়ে ধরেন, তেমনি ডাক্তারের চেম্বারে গেলেও নিজের সিরিয়ালের জন্যে অন্য অপেক্ষমান রোগীদের পাশে চুপচাপ বসে থাকেন।
গতকাল বিকালে একটি হাসপাতালের আউটডোর থেকে এই ছবিটি তুলেছি। পাশের রোগীরা কেউ বুঝতেও পারেনি অর্থমন্ত্রী তাদের পাশেই তাদের মতোই ডাক্তারের ডাকের অপেক্ষা করছেন।"
পোস্ট করার অল্প সময়ের মধ্যে ছবিগুলো ফেসবুকে ছড়িয়ে পরে এবং সকলের প্রশংসায় ভাসতে থাকেন তিনি। দেশের এমন একজন গুরুত্বপূর্ণ ব্যাক্তির সাধারণ মানুষের মত চলাফেরা সবাইকে মুগ্ধ করেছে।
উল্লেখ্য যে, আন্তর্জাতিক কৃষি উন্নয়ন তহবিল (ইফাদ) এর ৪২তম গভর্নিং কাউন্সিলে যোগ দিতে তিনি বর্তমানে ইতালি অবস্থান করছেন। মঙ্গলবার স্থানীয় সময় রাত আটটায় রোমের লিউন্যার্দো দ্যা ভিঞ্চি বিমানবন্দরে পৌঁছান।এসময় ইতালিতে নিযুক্ত বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্টদূত আব্দুস সোবহান সিকদার তাকে শুভেচ্ছা জানান।
হোটেল লবিতে মন্ত্রীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান ইতালি আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী মো. ইদ্রিস ফরাজী, সহ সভাপতি জাহাঙ্গীর ফরাজী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এম এ রব মিন্টু, সাংগঠনিক সম্পাদক লুৎফর সর্দার, জামান মোক্তার, আওয়ামী লীগ সদস্য ফারুক ফরাজী, যুবলীগ নেতা সোহেল বক্সী, রুহুল আমিন, স্বপন দাস এবং বাংলা প্রেস ক্লাব ইতালীর সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ হোসেনসহ আরো অনেকে।
বুধবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টায় ইতালি আওয়ামী লীগের আয়োজনে সংবর্ধনা দেওয়া হবে। মন্ত্রী ইফাত সম্মেলন শেষে আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারি দেশ ফিরবেন বলে জানা গেছে।

সূত্র:দেশ-বিদেশে