নববর্ষের প্রথম দিন গত রবিবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের কারাবন্দী বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে তার স্বাস্থ্য, চিকিৎসা ও মামলার আইনগত দিক নিয়ে আলোচনা হলেও প্যারোলে মুক্তি নিয়ে কোন কথা হয়নি জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলছেন, প্যারোলে মুক্তি ব্যাপারটি খালেদা জিয়া ও তার পরিবারের সিদ্ধান্ত। দলের নয়। বঙ্গবন্ধু মেডিকেলর প্রিজন সেলে খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা হচ্ছে না দাবি করে মহাসচিব আবারও বলছেন, বিএনপি চেয়ারপারসনের মুক্তির জন্য তারা আন্দোলনকে বেগবান করবেন। খবর ডিবিসি টিভি।
এ সর্ম্পকে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেন, প্রধানমন্ত্রী প্রায়ই বলেন,আন্দোলন করে বেগম খালেদা জিয়াকে ছাড়িয়ে নিন। আন্দোলন তো করতেই হবে। এটি ছাড়া কোন পথ নেই। জনগণ আমাদের পাশে আছে। বেগম খালেদা জিয়া অসুস্থ আছেন, কারাগারে আছেন তবু তিনি আছেন তো এটাই আমাদের প্রেরনা হিসেবে কাজ করছে।
তিনি আরো বলেন, মানবিকতা সবকিছুর উর্ধ্বে। মানবিকতা যদি না থাকে তাহলে গনতন্ত্র দিয়ে কিছু হবে না। এখানে শাসন ক্ষমতার প্রধান মায়ের জাতি। ওনার মানবিকতা বোধ বেশী থাকা উচিত। প্যারোলে মানবিকতার কিছু দেখছি না আমি। বেগম খালেদা জীবন নিয়ে আমরা কোন রাজনীতি করবো না। ৭ এপ্রিল বিশ^ স্বাস্থ্য দিবস গিয়েছে। এবারের বিষয় ছিল, সার্বজনীন স্বাস্থ্য সেবা । কিন্তুু বেগম খালেদা জিয়া কি স্বাস্থ্য সেবা পাচ্ছেন? পাচ্ছেন না। প্যারোলে খালেদা জিয়ার মুক্তির কোনো সম্ভবনা নেই।
সূত্র:amadershomoy