বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদি দল বিনএপি। বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় ও বড় রাজনৈতিক দল এটি। তবে দীর্ঘদিন ধরে ক্ষমতাহীন থাকার কারনে দলটির অবস্থা বেশ শোচনীয় এখন। আর সেই সাথে তার শরীক দল গুলোর অবস্থাও বেশ করুণ। ২০ দলীয় জোট করে জনগণের নিকট আস্থাভাজন হতে পারেনি বিএনপি। রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় যেতে ২০ দলীয় জোট কার্যকর করতে না পারায় বিএনপির ছত্রছায়ায় গঠন করা হয়েছিল জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। তবে দেশের জনগণ ছলচাতুরি বুঝে গেলে একাদশ জাতীয় নির্বাচনে দুই জোটের প্রার্থীদের শোচনীয় পরাজয় ঘটে। এরপর থেকেই বিএনপির সঙ্গে সম্পৃক্ত দুটি জোটই অকার্যকর হয়ে পড়েছে।
বিশ্লেষকরা বলছেন, বিএনপিতে নতুন জোট গঠনের আলোচনার প্রেক্ষাপট তৈরি করেছে তাদের পুরনো দুই জোটের ভাঙন। যেমন বিএনপির দুই দশকেরও বেশি সময়ের ২০ দলীয় জোটের দীর্ঘদিনের মিত্র ইসলামী ঐক্যজোট, শেখ শওকত হোসেন নিলুর (প্রয়াত) ন্যাশনাল পিপলস পার্টি (এনপিপি) অনেক আগেই জোট ত্যাগ করেছে।

২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনের আগে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠনকে কেন্দ্র করে বিএনপিকে ত্যাগ করেছে জেবেল রহমান গানির নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-ন্যাপ ও খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তজার নেতৃত্বাধীন ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এনডিপি)। ওই নির্বাচনের ফলাফল বর্জন করেও বিএনপির নির্বাচিত এমপিদের সংসদে যাওয়াকে কেন্দ্র করে ব্যারিস্টার আন্দালিভ রহমান পার্থের নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি-বিজেপিও ২০ দলীয় জোট ত্যাগ করে।

২০ দলীয় জোট এভাবে ভাঙনের কবলে পড়লে ড. অলি আহমদ বীর বিক্রমের নেতৃত্বে আরো ৩-৪টি দল নিয়ে তৈরি হয় জাতীয় মুক্তি মঞ্চ। এই মঞ্চ তৈরির পর প্ল্যাটফর্মটির শরীক এলডিপি, সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীর প্রতীকের বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি ও ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধানের জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি-জাগপায় ভাঙন সৃষ্টি হয়। কল্যাণপার্টির মহাসচিব এম এম আমিনুর রহমান আলাদা দল না বানালেও সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিমকে ত্যাগ করেছেন। আর এলডিপি ও জাগপা এখন দুই ভাগে বিভক্ত।

অন্যদিকে, ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচন সম্পন্ন হওয়ার কিছুদিন পর জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ত্যাগ করে বঙ্গবীর আবদুল কাদের সিদ্দিকী বীর উত্তমের কৃষক-শ্রমিক জনতা লীগ। ঐক্যফ্রন্ট প্রধান ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বাধীন গণফোরামও এখন খণ্ডিত। আ স ম আবদুর রবের নেতৃত্বাধীন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডিও খণ্ডিত হয়েছে। এছাড়া বিএনপির শীর্ষ নেতৃত্বের একাংশ জামায়াতের সঙ্গে দীর্ঘদিনের মধুচন্দ্রিমারও অবসান চাইছে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, রাজনীতির হিসাব-নিকাশে ধাক্কা খাওয়া ২০ দলীয় জোট বা ঐক্যফ্রন্ট অনেকটা অকার্যকর হয়ে পড়েছে বলে সবার কাছেই স্পষ্ট।

১/১১ এর পর থেকেই বিএনপির রাজনিতীতে ভাটা পড়তে শুরু করে। এর ২০০৮ সালের নির্বাচনের ভরাডুবি খাওয়া সেই ধাক্কার পর থেকেই আর ঘুরে দাড়াতে পরেনি দলটি। এর পর দলের প্রধান জেলে যাবার পর থেকে আরো বেশি খারাপ অবস্থার মধ্যে পড়ে যায়। এখনো কাটিয়ে উঠতে পারেনি সেই ধাক্কা।

আরো পড়ুন

আনুশককার ঘটনায় শেষ পর্যন্ত সত্যটা প্রকাশ পেল

16 January, 2021 | Hits:1898

গেল বেশ কিছু দিন ধরে বাংলাদেশের টক অব দ্যা টাউন হয়ে হয়ে আছে রাজধানীর কলাবাগানের একটি ঘটনা। সেই ঘটনার মূল কেন্দ্রবিন্দুত...

শেষ পর্যন্ত টিকলোই না সেই আলোচিত প্রবাসীর সংসার

17 January, 2021 | Hits:1522

বেশ কিছু দিন আগে বাংলাদেশের আনাচে কানাচে ছড়িয়ে যায় একটি ঘটনার রেশ। জানা যায় নিজের স্বামী প্রবাসে থাকার সুযোগ নিয়ে স্ত্রী...

হাইকমান্ড থেকে কি বলা হয়েছে কাদের মির্জাকে জানিয়ে দিলেন প্রকাশ্যে

16 January, 2021 | Hits:836

চলছে নোয়াখালীর পৌরসভা নির্বাচন। আর এবারের নির্বাচনে সব টুকু আলো যিনি কেড়ে নিয়েছেন তিনি হলেন বাংলাদেশের সড়ক ও যোগাযোগ মন্...

নৌকার চেয়ে ৮ গুণ বেশি ভোট পেয়ে জয়ী ধানের শীষের প্রার্থী

16 January, 2021 | Hits:635

হবিগঞ্জের মাধবপুরে ঘটে গেছে অবাক করা একটি ঘটনা। আর তা হলো আজকের পৌরসভার নির্বাচনের ফলাফল। জানা গেছে বিএনপির প্রার্থীর কা...

জেতার পর কাদের মির্জাকে ওবায়দুল কাদেরের ফোন

16 January, 2021 | Hits:290

অবশেষে নানা জল্পনা কল্পনার শেষে নির্বাচনে জিতেছেন আলোচিত ব্যক্তিত্ব জনাব কাদের মির্জা। দীর্ঘদিন ধরেই তিনি নির্বাচন নিয়ে ...

কাঁদতে কাঁদতে সোহেল রানা বললেন, অনেক আশা করে এসেছিলাম

17 January, 2021 | Hits:272

প্রতি বছর চলচিত্রে বিশেষ অবদান রাখার জন্য সরকারের তরফ থেকে দেয়া হয়ে থাকে জাতীয় পুরষ্কার। আর এই জাতীয় পুরষ্কার প্রতি বছর ...