এক হাতে ধরা ১৫টা কাঁচি। সবকটি কাঁচিই একসঙ্গে চালাতে ওস্তাদ তিনি। দিনের পর দিন এই কাজই তিনি করে চলেছেন আনায়াসে।
সাদিক আলি পাকিস্তানের লাহৌরের একটি সেলুনের মালিক। সাদিকের সেলুনের বেশ কদর রয়েছে। নিত্যদিনই ভিড় লেগে থাকে সেখানে। খদ্দেরের তালিকায় রয়েছেন আমনজতা থেকে ভিআইপি লোকজন।


চুল কাটার স্টাইলের ক্ষেত্রে সাদিকের জুরি মেলা ভার। অত্যন্ত দক্ষতায় একসঙ্গে ১৫ কাঁচি হাতে ধরে চুল কাটতে পারেন তিনি। সাদিকের এই আজব স্টাইলের জন্য সেলুনে উপচে পড়ে ভিড়।

সবাই চান একবার না একবার তার ১৫ কাঁচির অভিজ্ঞতার শরিক হতে। তবে সাদিকের সেলুনের খরচের ধরনটা একটু আলাদা। সময় অনুযায়ী টাকা নেওয়া হয় এখানে। কুড়ি মিনিট চুল কাটার জন্য খরচ করতে হয় একশ টাকা।

https://www.jagonews24.com/media/imgAll/2017August/hair-2-20170915132405.jpg

খরচ যাই হোক, সাদিকের খদ্দেরের তালিকা বেশ চমকপ্রদ। দেশের ক্রিকেট দলের তারকারা সাদিকের খুব ভক্ত। উমর আকমল, সোহেল তানভির, ইনজামাম উল হক, এমনকী পাক কোচ মিকি আর্থারের নিয়মিত যাতায়াত রয়েছে এই সেলুনে।

কিন্তু, কেন এমন আজব পদ্ধতি বেছে নিলেন ৩৩ বছরের সাদিক? ডেইলি মেইলকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে সাদিক জানান, জনৈক চীনা নাপিত জেডং ওয়াংয়ের কথা। যিনি ২০০৭ সালে এক হাতে ১০টি কাঁচি নিয়ে চুল কেটে রেকর্ড করেছিলেন।

সাদিকের কথায়, \’ইচ্ছা আছে এক সঙ্গে ১৬ টি কাঁচি নিয়ে চুল কাটার। সেই চেষ্টাই করছি।\’ পাশাপাশি নিজের কাজের ক্ষেত্রেও অত্যন্ত সচেতন সাদিক। আর তাই তো দিনে কুড়ি জনের বেশি কারও চুল কাটেন না তিনি।

News Page Below Ad