কয়েকদিন আগেই করোনা ভাইরাসের প্রভাবে থাইল্যান্ডের রাস্তায় বানরের অবাধ বিচরনের ভিডিও দেখা গেছে। আর এবার করোনা ভাইরাসের কারণে ফাকা সৈকতে দেখা গেল লাখ লাখ কচ্ছপ। মূলত, করোনা ভাইরাসের কারণে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ এরই মধ্যে লকডাউন করার ঘোষণা দিয়েছে। যার কারণে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পর্যটনরা পর্যটন কেন্দ্র গুলোতে যেতে পারছে না। আর এ কারণে ফাকা সৈকতে লাখ লাখ কচ্ছপ দেখা গেছে।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display


করোনাভাইরাস মহামারির কারণে ঘরবন্দি বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মানুষ। ভারতেও চলছে লকডাউন। বাধ্যতামূলক ঘরে থাকতে হচ্ছে সবাইকে। এমন অবস্থায় সম্পূর্ণ ফাকা সমুদ্র সৈকতও। সেই সুযোগে সৈকতের দখল নিয়েছে লাখ লাখ কচ্ছপ।

মানুষ ঘরবন্দি হওয়ায় যেখানে সেখানে ঘুরে বেড়াচ্ছে বণ্যপ্রাণীরা। সম্প্রতি কয়েকটি শহরের রাস্তায় বণপ্রাণীল ঘুরে বেড়ানোর ছবি দেখা যায়। এবার এক ভিডিওতে দেখা গেছে পর্যটকশূন্য সৈকতে হাজার হাজার কচ্ছপ জড়ো হয়েছে। মূলত ডিম পাড়তে এসেছে তারা।

ইন্ডিয়ান ফরেস্ট সার্ভিসের কর্মী সুশান্ত নন্দা বুধবার একটি ভিডিও সামাজিক মাধ্যশে পোস্ট করেছেন। সেখানে দেখা যাচ্ছে, সৈকতে প্রচুর কচ্ছপ আসছে। আর প্রত্যেকে প্রত্যেকের থেকে একটু দূরত্ব রেখে বালি সরিয়ে গর্ত খুঁড়ে ডিম পাড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে। খবর আনন্দবাজারের।

কচ্ছপরা সাধারণ প্রতি বছর একই জায়গায় এসে ডিম পাড়ে। তাই এই ভিডিও প্রতিবছরই পাওয়া যায়। কিন্তু কচ্ছপদের এই ডিম পাড়া দেখতে পর্যটকরাও হাজির হন সেখানে। তাতে কচ্ছপদের অসুবিধা হয়। ভারতের ওড়িশার সৈকতে এমন ঘটনা ঘটেছে।

সুশান্ত জানিয়েছেন, এবার করোনাভাইরাসের অতিমারির জেরে আর কোনো পর্যটক এখানে আসছেন না। ফলে রুশিকুল্যায় নিরিবিলিতে ডিম পাড়ছে কচ্ছপগুলি।

কিছুদিন আগে গহিরমাথা সৈকতে কয়েক লাখ কচ্ছপ ডিম পেড়ে যায়। মোট কত কচ্ছপ ডিম পাড়তে এসেছে তার মুটামুটি একটা হিসাবও দিয়েছেন সুশান্ত। তিনি জানান, মোটামুটি প্রায় আট লাখ কচ্ছপ ছয় কোটি ডিম পাড়বে আমাদের সৈকতে।



উল্লেখ্য, ভারত জুড়ে আগামী ১৮ দিন যাবত লকডাউন করার ঘোষণা করেছে দেশটির সরকার। মূলত করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণের জন্য এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তবে এ কারণে দেশটির অনেক মানুষ বড় রকমের সমস্যর মধ্যে পড়েছে। আর এ কারণে দেশটির সমুদ্র সৈকতও ফাকা হয়ে গেছে। যার কারণে এই ফাকা সমুদ্র সৈকতে লক্ষ লক্ষ কচ্ছপের দেখা মিলেছে।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display